kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, ইসলামপুর: বিরোধীদের আটকাতে রাজ্যে ক্ষমতাসীন তৃণমূল সরকার খুন করার মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর সরকারি পলিসি শুরু করেছে। এমন  অভিযোগ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সোমবার রায়গঞ্জ থেকে শিলিগুড়ি যাওয়ার পথে ইসলামপুর বাস টার্মিনাসে বিজেপি নেতাদের সঙ্গে চায়ের আড্ডায় রাজ্য সরকারকে এমন ভাষায় আক্রমণ করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

চোপড়ায় বিজেপি বুথ সভাপতির ভাইঝিকে ধর্ষণের পর খুন করা হয়েছে অভিযোগ করে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘এরাজ্যে এই সরকার থাকলে উলটপুরাণ চলবেই। যতদিন না এখানে সরকার বদল হচ্ছে, ততদিন এখানকার মানুষ নিরাপদ নন। তাই আমরা সরকার বদলের চেষ্টা করছি। পশ্চিমবঙ্গে আইনশৃঙ্খলার নামই নেই, প্রতিদিন কোথাও না কোথাও কেউ খুন হচ্ছেন। দোষীর সাজা হয় না। মামলার চার্জশিট হয় না। রাজ্য সরকার তথ্য সামনে আসতে দিতে চায় না। যারা এসব করছে তারা তৃণমূলের পতাকা তলে দাঁড়িয়ে আছে। তাই হেমতাবাদের বিধায়কের মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে যেতে হয়েছে।‘

তিনি আরও বলেন, ‘দাড়িভিটে দুটি ছাত্রকে খুন করে হয়েছিল। সেই কেস হাইকোর্টে চলছে। প্রতিবাদ করলে, প্রতিরোধ করলে তাঁদের ওপর পুলিশি অত্যাচার হবে। কেস খেতে হবে। আমরা গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে মানুষকে একত্রিত করে এই সরকার বদলের নিরন্তর চেষ্টা করে চলেছি।‘ এদিন বিজেপির জেলা সহ সভাপতি সুরজিৎ সেন, যুব মোর্চা নেতৃত্ব দুলাল নন্দী, পাপাই দে ও অনিকেত দাস-সহ মহিলা মোর্চার নেতৃত্বও উপস্থিত ছিলেন। ইসলামপুরে চায়ের আড্ডা সেরে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ শিলিগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here