kolkata news
Parul

 

ads

নিজস্ব প্রতিনিধি: কয়েকদিন আগে ফেসবুকে পোস্ট করে বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, বিপুল জনসমর্থন নিয়ে ক্ষমতায় আসা এক মাসের সরকারকে ৩৫৬-এর জুজু দেখানো ঠিক নয়। তারপর আজ প্রকাশ্যে এসে সেই একই অবস্থানে অনড় থাকলেন তিনি। আজ বিকেলে তৃণমূল রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষের বাড়িতে আসেন দেখা করতে। সেখানে বেশ কিছুক্ষণ তাদের আলোচনা হয়। তারপর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এক মাসের সরকারকে যেভাবে ৩৫৬-এর জুজু দেখানো হচ্ছে তা ঠিক নয়। একইসঙ্গে সাম্প্রদায়িকতার যে তাস খেলা হচ্ছে সেটাও তার পছন্দ নয়।

নিজের দল বিজেপি সম্পর্কে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই যে বক্তব্য তাতে মনে করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই তিনি তৃণমূলে ফিরতে পারেন। আজ কুণাল ঘোষের সঙ্গে তৃণমূলের ফেরার বিষয়ে আলোচনা করতেই তিনি দেখা করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সেই প্রসঙ্গে বলেছেন, আমার এক আত্মীয় অসুস্থ। তাকে দেখতে এখানে এসেছিলাম। পাশেই কুণাল ঘোষের বাড়ি। তাকে ফোন করে দেখা করতে আসি। এর মধ্যে অন্য কোনও বিষয় নেই। আমাদের মধ্যে রাজনৈতিক কোনও আলোচনা হয়নি। একই কথা বলেছেন কুণাল ঘোষও। তবে গতকাল মুকুল রায় তৃণমূল ফেরার পর আজ এই মিটিং নিয়ে জল্পনা ছড়াচ্ছে রাজনৈতিক মহলে। তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী সপ্তাহে বেশ কয়েকজন জনপ্রতিনিধি ও নেতা বিজেপি ছেড়ে যোগ দিতে পারেন রাজ্যের শাসক দলে। তালিকায় নাম থাকতে পারে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

​এদিকে, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘মীরজাফর’, ‘গদ্দার’, ‘বেইমান’ প্রভৃতি বিশেষণ দিয়ে এখনও পোস্টার পড়ছে ডোমজুড়ে। সেখানকার দলীয় কর্মীরা প্রত্যেকটি চাইছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে যেন দলে ফিরিয়ে না নেওয়া হয়। আজ একই মন্তব্য করেছেন হাওড়ার তৃণমূল সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি দলনেত্রীর কাছে আবেদন করে বলেছেন, হাওড়ায় ভোটের আগে যারা দল ছেড়েছিলেন, তাদের যেন ফিরিয়ে না নেওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here