রাহুল ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছেন! উপত্যকার পরিস্থিতি নিয়ে নয়া নির্দেশিকা জারি রাজভবনের

0
52
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জম্মু কাশ্মীরের ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগ এবার রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে। কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধীকে নিশানা করে রাজভবনের তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে বলা হয়, কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে রাহুল গান্ধী যে কথা বলেছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। মঙ্গলবার রাজভবনের তরফে পেশ করা একটি নির্দেশিকা জানান হয়, কাশ্মীর পরিস্থিতি স্বাভাবিক। ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে উপত্যকা।

রাজভবনের মুখপাত্রের তরফে বলা হয়, কাশ্মীর নিয়ে রাহুল গান্ধী যা বলেছেন তা সম্পূর্ণ ভুয়ো খবর। কাশ্মীরে এখনও অবধি অশান্তির পরিবেশ তৈরী হয়নি। রাহুল গান্ধী যা বলছেন তা পুরোপুরি বিদেশি সংবাদ মাধ্যম প্রকাশিত খবর এবং যার অধিকাংশই ভুয়ো। সেখানে আরও বলা হয়, রাহুল গান্ধীর উচিত বিদেশি পণ্য ত্যাগ করে এদেশি সংবাদ মাধ্যমের ওপর নির্ভরশীলতা বাড়ানো। প্রসঙ্গত, সীমান্তে ৩৭০ ধারা রদের পর থেকেই কাশ্মীরের পরিস্থিতি অশান্ত হয়ে উঠেছে বলে দাবি করতে থাকে কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম। এরই পাশাপাশি কেন্দ্রের তরফে আজ দুটি আন্তর্জাতিক মিডিয়াকে নির্দেশ পাঠিয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে, তাদের প্রকাশিত ভিডিয়ো এবং প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কাছে যথাযথ প্রমাণ আছে কিনা।

আজই জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের কটাক্ষের জবাব দিয়ে কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী বলেন, ‘বিমান চাই না, স্বাধীনতা চাই মানুষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার’। উপত্যকা থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর কংগ্রেসের দাবি ছিল, জম্মু-কাশ্মীরে অশান্তির পরিবেশ রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার তা সকলের সামনে আনছে না, কাউকে কিছু জানাচ্ছে না। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই রাহুল গান্ধীকে মৌখিক আক্রমণ শানান সত্যপাল মালিক।

এদিন রাহুল বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ পরিদর্শনের জন্য বিরোধীদের একটি দল এবং আমি আপনার আমন্ত্রণ গ্রহণ করলাম। কিন্তু আমাদের বিমানের কোনও প্রয়োজন নেই, আপনি আমাদের স্বাধীনতা দিন যাতে আমরা মানুষের সঙ্গে দেখা করতে পারি।’

উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করে সত্যপাল মালিক বলেছিলেন, ‘বিমান পাঠাচ্ছি, এসে দেখুন কী পরিস্থিতি কাশ্মীরের।’ ঠিক এমনই ভাষায় রাহুল গান্ধীকে একহাত নিলেন উপত্যকার রাজ্যপাল সত্যপাল। তাঁর কথায়, এতদিন রাহুল গান্ধীকে দায়িত্বশীল নেতা বলেই জানতেন, কিন্তু কাশ্মীর নিয়ে যা মন্তব্য তিনি করছেন তা সব ভুল ভাঙিয়ে দিচ্ছে। উপত্যকা প্রসঙ্গে এমন মন্তব্য করা তাঁর কখনই উচিত হচ্ছে না। এর পরেও থামেনি তরজা। রাহুলের কথার কড়া সমালোচনা করে রাহুল গান্ধীর টুইটের কড়া জবাব দেওয়া হয় রাজভবনের তরফে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here