শহরে ফের আক্রান্ত অভিনেত্রী, এবার দাদাগিরির অভিযোগ পেট্রল পাম্প কর্মীদের বিরুদ্ধে, আটক ১

0
240

 রাজেশ সাহা, কলকাতা: সাত সকালে তিলোত্তমার রাস্তায় ফের আক্রান্ত হলেন টালিগঞ্জের এক অভিনেত্রী। ঘটনাস্থল রুবির মোড় এলাকার একটি পেট্রল পাম্প। এবার দাদাগিরির অভিযোগ পেট্রল পাম্প কর্মীদের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কসবা থানার পুলিশ। ওই অভিনেত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার সময়ের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে কসবা থানার পুলিশ।

সম্প্রতি বিদেশ থেকে কলকাতায় ফিরে রবিবার সকালে নিজেদের গাড়ি নিয়ে ঘুরতে বেরোন পেশায় মডেল ও অভিনেত্রী জুহি সেনগুপ্ত। গাড়িতে ছিলেন তাঁর বৃদ্ধ বাবা, মা এবং বোন। অভিযোগকারিণীর দাবি, এদিন সকাল সাড়ে নটা নাগাদ রুবি মোড়ের কাছে একটি পেট্রোল পাম্পে গাড়ির তেল ভরার জন্য ঢোকেন তাঁরা। দেড় হাজার টাকার তেল দিতে বলা হলে, বিবেক কুমার যাদব নামে পেট্রল পাম্পের এক কর্মী তিন হাজার টাকার তেল দিয়ে দেন। এরপর তিন হাজার টাকা দাবি করলে, ওই অভিনেত্রী মৃদু প্রতিবাদ করেন। তিনি প্রশ্ন করেন, দেড় হাজার টাকার তেল দিতে বলা হলেও কেন দ্বিগুণ পরিমাণ তেল তার গাড়িতে দেওয়া হল? অভিযোগ, এই প্রশ্ন শুনেই চটে যান পেট্রোল পাম্পের ওই কর্মী। মহানগর 24×7-কে অভিনেত্রী জুহি সেনগুপ্ত বলেন, “ভুল যখন করে ফেলেছে আমি অবশ্যই পুরো টাকাটা দিয়ে দিতাম, কিন্তু তার আগেই পেট্রল পাম্পের অন্য এক কর্মী এসে আমাদের উপর আচমকা চড়াও হয়। মেজাজ দেখিয়ে আমাদের গাড়ির চাবি জোর করে খুলে নিয়ে যায়, চাবি খুলে নেওয়ার প্রতিবাদ করলে পেট্রোল পাম্পের আরও দুই কর্মী বচসায় জড়িয়ে পড়ে”।

অভিযোগ, এরপরেই মহেশ যাদব ও রাজেশ ঝাঁ নামে পেট্রোল পাম্পের দুই কর্মী অভিনেত্রীর বাবার গায়ে হাত তোলেন। আচমকা ধাক্কাধাক্কিতে কিছুটা অসুস্থ বোধ করতে থাকেন তাঁর বয়স্ক বাবা ডঃ প্রবীর সেনগুপ্ত। বাবাকে বাঁচাতে এলে ওই অভিনেত্রীকেও ধাক্কা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এরপরেই গোটা ঘটনাটির প্রতিবাদ করে একটি ফেসবুক লাইভ ভিডিও করেন অভিনেত্রী জুহি সেনগুপ্ত। সেখানে পেট্রোল পাম্প কর্মীদের দাদাগিরির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। এই ঘটনার জেরে শহর কলকাতায় প্রকাশ্য দিবালোকে নাগরিকদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন জুহি। এর মধ্যেই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কসবা থানার পুলিশ বাহিনী। অভিনেত্রীর প্রাথমিক অভিযোগের ভিত্তিতে ওই পেট্রোল পাম্পের কর্মী মূল অভিযুক্তকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পুলিশ সূত্রে খবর, রুবি মোড়ের বিপরীতে অবস্থিত ওই পেট্রোল পাম্পের সিসিটিভি ফুটেজ চেয়ে পাঠানো হয়েছে কসবা থানার তরফে। ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে কসবা থানার পুলিশ। মহানগরের তরফে এই বিষয়ে ডেপুটি কমিশনার সুদীপ সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, “এই ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে,অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here