news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: একদিকে করোনার সঙ্গে কঠিন লড়াইয়ে নেমেছে দেশ। তবে তাকে বিশেষ গুরুত্ব না দিয়ে বিজেপি নেতারা মেতে রয়েছেন হিন্দু-মুসলিম ভাগাভাগিতেতে। এক মুসলিম সবজি বিক্রেতাকে হেনস্তা করায় বিজেপি বিধায়ক সুরেশ তিওয়ারির কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে দল। তবে শোধরানোনি গেরুয়া নেতারা। আরও একবার মুসলিম সবজি বিক্রেতাকে হেনস্তার অভিযোগ উঠল উত্তরপ্রদেশে। এখানেও উঠে এসেছে বিজেপি বিধায়কের নাম।

জানা গেছে অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়কের নাম ব্রজভূষণ রাজপুত। উত্তর প্রদেশের মাহোবা জেলার চারখালির বিধায়ক তিনি। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক সবজি বিক্রেতা ও তার ছেলেকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ওই বিধায়ক। প্রথমে নাম জিজ্ঞাসা করা হয় ওই সবজি বিক্রেতার। তিনি জানান তার নাম রাজকুমার। তবে বিধায়কের সন্দেহ হয় তিনি মুসলিম। আসল নাম বলার জন্য বারবার হুঁশিয়ারি দিতে থাকেন তিনি। শেষে ওই সবজি বিক্রেতার ছেলেকে বাবার নাম জিজ্ঞেস করতে সে জানায় তার বাবার নাম আজিজুর রহমান। এরপরই তেতে ওঠেন বিধায়ক। বলেন, ‘মুসলিম হয়ে মিথ্যা কথা বলা’। এমনটা আর হবে না বলে বারবার অনুরোধ করতে থাকেন ওই সবজি বিক্রেতা ও তার ছেলে। এরপর বিধায়ক হুঁশিয়ারি দেন, ‘তোদের যেন এই এলাকায় আর না দেখি। যদি দেখি তাহলে উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে তোদের।’

তবে কেন একজন মুসলিম সবজি বিক্রেতা কে এমন হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি বিধায়ক? সংবাদসংস্থাকে এর ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি। তার দাবি, ‘আমি তাকে হেনস্থা করেছি কারণ সে মিথ্যা কথা বলেছে। বলেছে তার নাম রাজকুমার, অথচ সে মুসলিম। ও গ্লাভস, মাস্ক কিছুই পরেনি। আমরা জানি কানপুরে ১৬ জন ও লখনৌতে একজন সবজি বিক্রেতা করোনা আক্রান্ত।’ যদিও যে ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে সেখানে দেখা গেছে মাস্ক পরে রয়েছেন ওই সবজি বিক্রেতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here