news bengali kolkata

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একাধিকবার বলতে শোনা গিয়েছে, ‘কাজ করলেই তো ভুল হয়, এটাই স্বাভাবিক। কাজ না করলে ভুল হবে কীভাবে’। কিন্তু, ভুল করার অন্যতম শর্ত হল, সেটা থেকে শিক্ষা নেওয়া। নতুবা যখন একই ভুল বারবার ঘটে, তখন তাকে গাফিলতি আখ্যা দেওয়া হয়। সেই গাফিলতির অভিযোগেই এবার কলকাতা শহরে বিনা চিকিৎসায় বেঘোরে প্রাণ গেল জয়নগরের এক বছর ২৬-এর যুবকের। তার শরীরেও করোনার উপসর্গ ছিল বলে খবর।

অশোক রুইদাস। বয়স মাত্র ২৬। বিগত কয়েকদিন ধরে টাইফয়েডের উপসর্গ তার শরীরে দেখা যাচ্ছিল। ভর্তি ছিলেন বারাসতের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। কিন্তু, গতকাল থেকেই শ্বাসকষ্ট ও জ্বর সহ কোভিডের উপসর্গ দেখা দিতে শুরু করে ওই যুবকের শরীরে। ফলে বারাসতের হাসপাতাল থেকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয়। সেই মতো এদিন ভোরে প্রথমে অ্যাম্বুলেন্সে করে এসএসকেএম হাসপাতালে ওই যুবককে নিয়ে আসেন তার পরিবারের সদস্যরা।

এসএসকেএম থেকে ওই রোগীকে প্রথমে রেফার করা হয় শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতালে। শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতালে গেলে সেখানকার চিকিৎসক জানান, যুবকের অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক। সঙ্গে সঙ্গে শম্ভুনাথ পণ্ডিত থেকে রেফার করা হয় মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। তবে সেখানে ভর্তি করার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে ওই যুবক। তিন দিনের মাথায় কার্যত একই ঘটনার পুনরাবৃত্তির জেরে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিলেও তা বাস্তবে কার্যকর হচ্ছে কই?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here