ডেস্ক: টানা বৃদ্ধির পর এবার ধীরে ধীরে নিচের দিকে নামছে পেট্রোল ডিজেলের দাম। রবিবার সকালের বাজারে পেট্রলের দাম কমে ৯ পয়সা প্রতি লিটার দামে সস্তা হল। কিন্তু ডিজেলের দামে কোনও রকম তারতম্য দেখা গেল না। অথচ গত শনিবার পেট্রোল ও ডিজেল উভয়ের দাম ৯ পয়সা প্রতি লিটার করা হয়েছিল। আজ দিল্লিতে পেট্রলের দাম ৭৮.১১ টাকা প্রতি লিটার, সেখানে কলকাতায় ৮০.৭৫ প্রতি লিটার, মুম্বাইতে ৮৫.৯২, চেন্নাইতে ৮১.০৯ প্রতি লিটার।

এর আগে গত শুক্রবার পেট্রলের দাম ৬ পয়সা আর ডিজেলের দাম ৫ পয়সা লিটার পড়ে গিয়েছিল। এইভাবে গত তিনদিনে পেট্রোল আর ডিজেলের দাম ১৪ এবং ১১ পয়সা করে সস্তা হয়েছে। গত কয়েকদিনে আন্তর্জাতিক বাজারে চার পাঁচ দিন ধরে কাঁচা তেলের দাম কম হয়েছে। যার ফলে পেট্রোল ডিজেলের দামে কিছুটা ঘাটতি এসেছে। তাও এই ১৬ দিন ধরে পেট্রোল ডিজেলের দাম বাড়ার পর গত চারদিন ধরে দেশের সাধারন মানুষ কিছুটা হলেও শান্তির নিঃশ্বাস ফেলছে।

কিছুদিন আগে পেট্রলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান বলেছিলেন যে, তেলের দামের নির্ধারণ তেল কোম্পানিগুলি করে। এখানে সরকারের কোনও ভুমিকা থাকে না। তিনি আরও বলেছেন যে, গত কয়েকবছর ধরে পেট্রলের দাম কত হবে তা ঠিক করে বাজার। দৈনিক দামের নির্ধারণও গত বছর থেকে শুরু হয়ে গেছে। যখন সারা দেশে পেট্রোল ডিজেলের দাম বাড়ছে, সেই সময়ে কেরল সরকার পেট্রোল-ডিজেলের দাম কম করে দিয়ে নিজেদের নাম শীর্ষে আনে। কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পি. বিজায়ন বলেছেন যে, রাজ্য সরকার পেট্রোল আর ডিজেলের দাম ১ টাকা করে কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্ত ১ জুন থেকে পুরো রাজ্যে চালু হবে।

প্রসঙ্গত, টানা ১৬ দিন ধরে দাম বাড়ার পর গত বুধবারেই প্রথম জ্বালানির দাম কমে। যদিও, লিটার প্রতি ১ পয়সা দাম কমানো হয়েছিল। যা নিয়ে বিরোধীদের হাসির খোরাক হয় মোদী সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here