ডেস্ক: এয়ার ইন্ডিয়ার বোডিং পাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানির ছবি ঘিরে সম্প্রতি ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। একটি নির্দিষ্ট বিমান সংস্থার বোডিং পাসে কেন কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী ছবি থাকবে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। এক যাত্রী বোডিং পাসের ছবি পোস্ট করার পর বিতর্ক আরও বাড়ে। শেষ পর্যন্ত বিতর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে ওই বোডিং পাস তুলে নিল এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ।

সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, যে বোডিং পাস নিয়ে বিতর্ক তা ‘ভাইব্রেন্ট গুজরাত’ সম্মেলনের সময় ছাপানো হয়েছিল। সেই পাসগুলিই এখন রয়ে যাওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই। পাশাপাশি, এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষের সঙ্গেও এর যোগাযোগ নেই। এই পাস শুধুমাত্র গুজরাত নয়, গোটা দেশের জন্যই প্রযোজিত।

 

নির্বাচনী নির্ঘন্ট প্রকাশের পর নিয়মের ঘেরাটোপ অনেক বেশি বেড়ে গেছে। এখন রাজনৈতিক প্রচার খুব মেপেঝুঁপেই করতে হবে সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলিকে। সেই কারণে মোদী ও গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রীর ছবি থাকা বোডিং পাস নিয়ে বিতর্কের মাত্রা আরও বেড়েছে। তবে শেষপর্যন্ত তা তুলে নিতে বাধ্য হয়েছে কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, এর আগে ভারতীয় রেলের টিকিটে মোদীর ছবি থাকা নিয়ে আপত্তি জানায় তৃণমূল। ২০ মার্চ নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ তুলে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়ে মমতার দল। পরে অবশ্য সেই টিকিটও তুলে নিতে হয় রেলকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here