kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাসের আবহে শিক্ষানীতি নিয়ে কেন্দ্রকে তুলোধনা করলেন উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব। শিক্ষা ক্ষেত্রে সরকারের ভ্রান্ত নীতির ফলে সম্পূর্ণ ব্যবস্থায় একটা বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছে বলে অভিযোগ করে সমাজবাদী পার্টির নেতা বলেন, করোনার জন্য স্কুল কলেজ বন্ধ। যে সব দরিদ্র পরিবারের বাচ্চাদের স্মার্ট ফোন নেই, অনলাইন ক্লাসে তাদের কোনও উপকার হচ্ছে না।

কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করে অখিলেশ যাদব বলেন, যে সব পড়ুয়া স্বচ্ছল পরিবারভুক্ত, অনলাইন ক্লাসে একমাত্র তাদেরই উপকার হবে। দরিদ্র পরিবারের ছেলে মেয়েদের স্মার্টফোন নেই। তাছাড়া রয়েছে নেটওয়ার্কের সমস্যা। বহু গ্রামে কোনও নেটওয়ার্কই পাওয়া যায় না। কেন্দ্রের এই নীতি তফসিলি জাতি ও উপজাতির ছাত্র–ছাত্রীদের প্রতি বিমাতৃসুলভ আচরণ বলে মন্তব্য করেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

কোভিড–১৯ মহামারীর কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মচারীদের নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কোনও মাথাব্যথা নেই বলে অভিযোগ করেন অখিলেশ। বিদ্যালয়ের পরিচালন সমিতির ওপর চাপ দেওয়া হচ্ছে যাতে তারা পঠন–পাঠন বাবদ কোনও ‘ফি’ না নেয়। এর নীতি প্রয়োগের জন্য যে সব অভিভাবকরা মাইনে দিতে পারেন তারাও এই সুযোগে কিছু দিচ্ছেন না। এর ফলে রাজ্যের ১০ লক্ষ শিক্ষক–অশিক্ষক কর্মচারী অত্যন্ত বিপদের মুখে পড়েছেন।

সমাজবাদী পার্টির নেতার বক্তব্য, কিছু বেসরকারি কলেজ তাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক–অশিক্ষক কর্মচারীদের মার্চ ও এপ্রিলের বেতন দিয়েছেন। কিন্তু এমন অনেক কলেজই আছে যারা মার্চ মাসের বেতনটুকুও দেননি। এই গোটা পরিস্থিতিটি তাদের কাছে অত্যন্ত মারাত্মক হয়ে উঠেছে যারা শুধু মাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চাকরিটুকুর ওপর ভরসা করেই পরিবার চালান। তাদের অনেকেই অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন বলে জানান উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here