ডেস্ক: ফের বিতর্কে নাম জড়ালো অভিনেতা অক্ষয় কুমারের৷ পাঞ্জাবের পবিত্র ধর্মগ্রন্থকে অপবিত্র করার অভিযোগে মিঃ খিলাড়িকে তলব করল স্পেশ্যাল ইনভেস্টিকেশন টিম৷ শুধু অক্ষয়ই নন, শমন পাঠানো হয়েছে পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ সিং বাদল এবং তাঁর ছেলে প্রাক্তন উপ-মুখ্যমন্ত্রী সুখবির সিং বাদলকেও।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থা রিপোর্টে জানা যায়, এই ঘটনার সূত্রপাত ২০১৫ সালের জুন মাসে৷ ধর্ষক বাবা রাম রহিমের থেকেই ঘটনার শুরু। তৎকালীন পুলিসমন্ত্রী সুখবির সিং এই বিষয়ে তদন্ত শুরু করার নির্দেশ দেননি। আর এখানেই অভিনেতার নাম হঠাৎই ঢুকে যায়, সূত্রের খবর, তিনিই নাকি রাম রহিমের সঙ্গে প্রকাশ সিং এবং সুখবীর সিংয়ের মধ্যস্থতার চেষ্টা করেছিলেন। যদিও অভিযোগ আগেই অস্বীকার করেছিলেন অভিনেতা। ট্যুইট মারফত তিনি জানিয়েছিলেন, স্বঘোষিত বাবা রাম রহিমের সঙ্গে তিনি কোনদিনই নাকি সাক্ষাৎ করেননি। যদিও এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদও সেই সময়৷ এমনকি পুলিসের গুলিতে মৃত্যু হয় দুই আন্দোলনকারীরও।

ঘটনাটির তদন্ত শুরু করে সিট৷ এই তদন্তকারী সংস্থাই ১৬ নভেম্বর থেকে জেরা শুরু করবে তিনজনকে নিয়ে। তবে তিনজনকে একসঙ্গে বসিয়ে নয়, বরং পৃথক পৃথক দিনে তলব করেছেন অক্ষয়দের৷ অক্ষয় এবং প্রাক্তন উপমন্ত্রীকে জেরা করা হবে যথাক্রমে ১৯ এবং ২১ নভেম্বর৷ এবং প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে ১৬ নভেম্বর অমৃতসরের সার্কিট হাউজে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here