ডেস্ক: ২০১৭ সালে অক্ষয় কুমার ‘ভারত কে বীর’ অ্যাপ লঞ্চ করেন। ভারতের প্রতিরক্ষা দফতরের সাহায্যের জন্য এই অ্যাপটির আত্মপ্রকাশ ঘটান অক্ষয় কুমার। এই অ্যাপের মাধ্যমে ভারতের যে কোনও নাগরিক কিংবা বিশ্বের যে কেউ ভারতের সেনাদের সাহায্যের জন্য অর্থ প্রদান করতে পারবেন। এতে শহীদ হওয়া সেনাদের পরিবারের কাছে সরাসরি সাধারণ মানুষের পাঠানো টাকা পেয়ে যাবেন তাঁরা। এই অ্যাপের রেসপনশ দেখে অক্ষয় নিজে অবাক হয়ে গিয়েছেন।

গতকাল এক অনুষ্ঠানে এসে তিনি জানান, ”আমরা এটা বলব যে শুধু কর্তব্য পালন করছি। কিন্তু যারা শহীদ হন তাঁদের পরিবারের ক্ষতি আমরা কোনওদিন মেটাতে পারব না। সরকার একটা টাকা দেন, সেটা তাঁদের কর্তব্য। কিন্তু একজন সাধারণ মানুষ হিসাবে আমাদেরও কিছু দায়িত্ব আছে। এই অ্যাপটা তাই বানানো হয়েছে কারণ এর মাঝে কেউ নেই। কোনও ব্যক্তি মধ্যস্থতা করবে না। এই অ্যাপের মাধ্যমে ৫০০-৫৫০ শহীদ হওয়া জওয়ানদের পরিবার মোট ১৫ লাখ করে অর্থ পেয়েছে। কিন্তু আপনাদের এটা মনে রাখতে হবে এটা কোনও সাহায্য বা দান নয় এটা আমাদের কর্তব্য। এটা আমাদের সারাজীবন করতে হবে।” গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামাতে শহীদ হওয়া জওয়ানদের পরিবারের প্রতি আর্থিক সাহায্যের জন্য প্রত্যেক পরিবারকে ৫ কোটি করে টাকা দিয়েছিলেন অক্ষয় কুমার।

 

পাশাপাশি অক্ষয় তাঁর আগামী সিনেমা ‘কেশরি’ এই শহীদ জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের জন্য বানিয়েছেন বলেও ঘোষণা করেছেন খিলাড়ি কুমার। অক্ষয় জানিয়েছেন, ”এটা একটি সিনেমা যেটি দেশভক্তি প্রদর্শন করে। আমাদের সেনাদের শ্রদ্ধার জন্য বানানো হয়েছে এই সিনেমাটি। যারা দেশের জন্য প্রাণ দেন কোনও কথা না ভেবে।” আগামী ২১ শে মার্চ বড়পর্দায় মুক্তি পাবে ‘কেশরি’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here