কুণাল দাশগুপ্ত: সলিল চৌধুরী একবার প্রখ্যাত সাংবাদিক রাজু ভর্তনকে একান্ত আলাপচারিতায় বলেছিলেন, শিক্ষকদের একটা তালিকা করলে সবার ওপরে থাকবেন শচীন দেব বর্মন। সলিলবাবুর কথায়, প্রায় আনকোরা কিশোরকুমারকে যেভাবে তৈরি করেছিলেন-তা তুলনাহীন। ১৯৫৩ সালে ‘নৌকরি’ ছবিতে যে কিশোরকন্ঠ তাঁকে যথেষ্ট হতাশ করেছিল, পরবর্তী সময়ে তাঁকে দিয়ে ‘অন্নদাতা’ বা ‘মেরে আপনে’ ছবিতে অসাধারণ গান গাইয়েছিলেন। শচীন কর্তা ছাড়া কি এই ম্যাজিক সম্ভব ছিল?

আলেহান্দ্রো ছাড়া কি ইস্টবেঙ্গলের পারফর্ম্যান্স সম্ভব ছিল?
উত্তর: না।

আলেহান্দ্রোই কি লাল-হলুদের শচীন দেব বর্মন?
উত্তর: হ্যাঁ।

স্প্যানিস কোচ যখন ইস্টবেঙ্গলে যোগ দিলেন তখন সুরে বাজছিল না তাঁর দল। সি মেজর, জি মাইনরের খিচুরি। চুলোভা, ব্র্যান্ডন, জবিদের বৃন্দগান বাজছিল বেসুরে। তিনকাঠি-টা তো আস্ত ব্ল্যাকহোল। যা যায় সবই জালে জড়িয়ে যায়। বিদেশি বলতে সদ্য বিশ্বকাপ খেলা জনি, ভোঁতা হয়ে যাওয়া কাসিম, চোটে কাতর আমনা। ক্লাব গেল মালয়শিয়ায়। বিদেশ ভ্রমণ তো কোনও সোনার কাঠি নয় যে হুঁশ ফিরিয়ে এনে সব বদলে দেবে। হয়ও নি। ভবিষ্যতের পাশে রাশি রাশি প্রশ্নচিহ্ন। এর মধ্যে যোগ দিলেন স্প্যানিস বোরহা, এনরিকে। বাঁশি বাজল আই লিগের। পাহাড়ে প্রথম দু’ম্যাচে ছয় পয়েন্ট পাওয়ায় পাহাড় প্রমাণ প্রত্যাশা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু ওই দুটি ম্যাচে ইস্টবেঙ্গল সুরে বাঁধা ফুটবল খেলেনি। তখনও সুর, তাল কাটা লাল-হলুদ নিয়ম করে হতাশ করছে। লিগ গড়াতে না গড়াতেই পাঁজরে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে চলে গেলেন এনরিকে। ডার্বির আগে কোলাডো যোগ দিলেও পাওয়া গেল না এনরিকের সার্ভিস। কিন্তু তত দিনে লালডানমাউইয়া, জবিরা বদলে যেতে শুরু করেছেন। ডার্বির গায়ে লাল-হলুদ লেপে দিয়েছে আলেহান্দ্রোর ইস্টবেঙ্গল। পরের ডার্বিতেও একই ছবি। লাল- হলুদে উজ্জ্বল যুবভারতী। বহু চড়াই-উতরাইের পর ইস্টবেঙ্গল আই লিগে দ্বিতীয়। চ্যাম্পিয়ন তো নয়, তবু কেন এত কোচ বন্দনা? আলেহান্দ্রোর বায়নাক্কা নেই। ‘এই দাও, ওই দাও’ বলে কান্নাকাটি করেননি।

 

এক রেডিও অনুষ্ঠানে কিশোরকুমার বলেছিলেন, শচীনকর্তা গান সহজ করে দিতেন। তাঁর উপযুক্ত করে সুর তৈরি করতেন। লাল-হলুদ কোচ কী করলেন? সেটপিসে জোর দিলেন। ডিকা, জবি, কোলাডোরা সুপারহিট ওই ‘আরাধনা’, ‘অভিমান’-এর মতোই। ভারতীয় ফুটবলে কোচ এসেছে, গিয়েছে। থেকে যাবেন আলেহান্দ্রো। ‘কে যাস রে ভাটিগাঙ বাইয়া’র মতোই।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here