ডেস্ক: ‘সঞ্জু’ সিনেমা রণবীরের কেরিয়ারের গ্রাফ করে দিয়েছে উর্দ্ধমূখী। যে সকল পরিচালকেরা তাঁকে প্রায় বাতিলের খাতায় পাঠিয়ে রেখেছিলেন তাঁরা এখন রণবীরকে নিয়েই ভাবছেন। পাশাপাশি রণবীরের জীবন এখন রঙিন হয়ে উঠেছে। ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ সিনেমার শুটিং সেট থেকে প্রেম শুরু হয় রণবীর ও আলিয়ার। সেই প্রেম ধীরে ধীরে পরিনত হতে থাকে। বলিউডে এই মুহূর্তে প্রথম তালিকায় আছে তাঁদের প্রেম পর্ব। একে ওপরের পরিবারকেও দিচ্ছে সময়। কখনও আলিয়ার সঙ্গে রণবীরের পরিবারের ডিনার কিংবা মধ্যরাতে আলিয়ার বাড়িতে রণবীরের প্রবেশ। পাপারাজিৎদের নজর কিছুই এড়িয়ে যায়নি।

অপরদিকে নিজেদের প্রেম নিয়ে বেশ খোলামেলাই আছেন দুজনে। মিডিয়া বা যেকোনও জায়গায় তাঁরাই নিজেদের মুখ থেকে স্বীকার করে নিয়েছেন এই বাস্তব সত্যিটা। দুদিন আগে আলিয়ার বাড়ি যাওয়া নিয়ে মহেশ ভাট জানিয়েছেন যে ”আমি রণবীরকে খুবই ভালোবাসি। তবে আলিয়া বা রণবীরের নিজস্ব ব্যাপার নিয়ে আমি নাক গলাবো না।” পাশাপাশি রণবীরের অভিনয় নিয়ে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মহেশ। তাঁর চোখে রণবীর এখন সেরা অভিনেতা। আলিয়ার সঙ্গে তুলনা টেনে দুজনকেই একই জায়গায় রেখেছেন মহেশ ভাট। রণবীরের অভিনয়ে ও চিত্রনাট্যের দমে ‘সঞ্জু’ সিনেমা ইতিমধ্যেই ২৫০ কোটির উদ্দেশ্য যাত্রা শুরু করে দিয়েছে। অপরদিকে আলিয়ার ‘রাজি’ সিনেমা বক্স অফিসে ভালোই ব্যবসা করেছে। এই সিনেমাতে আলিয়ার অভিনয় যথেষ্ট মুগ্ধ করেছে দর্শকদের।