নিজস্ব প্রতিবেদক, বিধাননগর: দূরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারকে ভয় কে না পায়! তবে চিকিত্সা বিজ্ঞানের দৌলতে বর্তমানে ক্যান্সার নিরাময়ও সম্ভব। ক্যান্সার চিকিৎসার দেশের বৃহত্তম প্রতিষ্ঠান হেলথ কেয়ার গ্লোবাল (এইচসিজি) এন্টারপ্রাইজও এখন এসে গিয়েছে একেবারে দোরগোড়ায়। কলকাতার অদূরে নিউটাউনে নতুন শাখা খুলেছে এইচসিজি এন্টারপ্রাইজ। শুধু শাখা খোলা নয়, ইতিমধ্যে ক্যান্সার চিকিৎসা প্রদানের কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে।

নিউটাউনের হাসপাতালটিতে একই ছাদের নীচে ক্যান্সারের যাবতীয় চিকিৎসার সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন এইচসিজি এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের চেয়ারপার্সন ডা. বি.এস অজয় কুমার। তিনি বলেন, ‘অস্থি-মর্জা প্রতিস্থাপন, সার্জিকাল অঙ্কোলজি, রেডিওশন অঙ্কোলজি সহ একাধিক পরীক্ষামূলক চিকিৎসা ব্যবস্থা রয়েছে কলকাতার নিউটাউনের ক্যান্সার হাসপাতালে। ইতিমধ্যে ৮৮টি রোগীকে একসঙ্গে রেখে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার কাজও শুরু হয়েছে। আগামীদিনে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে শয্যার সংখ্যা বাড়ানো হবে।’ মারণ ক্যান্সারের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আর বিদেশ যাত্রার দরকার হবে না বলেও ডা. কুমার জানিয়েছেন।

ক্যান্সার চিকিৎসার অন্যতম প্রতিষ্ঠান এইচসিজি এন্টারপ্রাইজের সদর দফতর বেঙ্গালুরুতে। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই হাসপাতালের শাখা রয়েছে। বাদ ছিল কলকাতা। ফলে কলকাতার ক্যান্সার রোগীদের চিকিত্সা করাতে অন্য শহরে ছুটতে হত। অনেকে আবার একই ছাদের নীচে সমস্ত পরিষেবা পাওয়ার জন্য ছুটে যেত বিদেশে। তবে এখন নিউটাউনে এইচসিজি এন্টারপ্রাইজের শাখা খোলায় এবং একই ছাদের নীচে সমস্ত সুবিধা পাওয়ার খবরে হাসি ফুটেছে ক্যান্সার রোগীদের পরিবারের মুখে। তবে কেবল ক্যান্সার নয়, হেড অ্যান্ড নেক ইউরোলজি, গাইনোকোলজি, অর্থোপেডিক্স সহ একাধিক জটিল রোগের চিকিৎসারও ব্যবস্থা করা হয়েছে নিউটাউনের এইচসিজি এন্টারপ্রাইজ হাসপাতালে। ফলে ক্যন্সার রোগীর পাশাপাশি অনান্য রোগীরাও এখানে চিকিৎসার সুবিধা পাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here