kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক:  এবার কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুর চড়াল দেশের বেশ কয়েকটি বিরোধী দল। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপ নিয়ে ইতিমধ্যেই পৃথক পৃথক ভাবে মত পেশ করেছিলেন বিরোধী দলের নেতা নেত্রীরা। এবার রাজধানীর বুকে উপত্যকার স্পেশাল স্ট্যাটাস খর্ব করা নিয়ে ধর্ণা মঞ্চে বসতে চলেছে কংগ্রেস, সিপিএম, তৃণমূল। যদিও এই ধর্ণা মঞ্চের আয়োজক ডিএমকে।

কাশ্মীর ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রথম থেকেই সুর চড়িয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। ইতিপূর্বেই সংসদে বিল পাশ করান নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তিনি। পাশাপাশি গতকাল টুইট করে কাশ্মীরের গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী। প্রসঙ্গত দক্ষিণ ভারতের রাজনৈতিক দল ডিএমকে এই ধর্ণা মঞ্চের ডাক দেয়। পাশাপাশি আহ্বান জানান হয়, কংগ্রেস সিপিএম ও তৃণমূলকে। জানা গিয়েছে, তৃণমূল নেত্রীর প্রতিনিধি হয়ে যন্ত্র মন্ত্ররের ধর্ণা মঞ্চে উপস্থিত থাকবেন দীনেশ ত্রিবেদী। একই মঞ্চে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে সিপিএম এর সাধারন সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিরও। কংগ্রেসের তরফেও প্রতিনিধি পাঠানোর কথা রয়েছে।

বস্তুত কিছুদিন আগেই এম করুণানিধির মৃত্যু বার্ষিকীতে উপস্থিত ছিলেন এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মঞ্চ থেকেই দেশের সকল ছোট বড় অবিজেপি দলগুলিকে একজোট হওয়ার অনুরোধ জানান তিনি। অন্যদিকে পৃথক ভাবে সরকারের এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করছে সিপিএম। সোশ্যাল নেটওয়ার্কি সাইটে এই নিয়ে প্রচার ও চালাচ্ছে তারা। পাশাপাশি ডিএমকে সভাপতি স্টালিন বলেন, কাশ্মীরে যেভাবে রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করে রাখা হয়েছে তা সম্পূর্ণ অগনতান্ত্রিক। সরকারের এই কাজের বিরুদ্ধে এবার দিল্লির যন্ত্র মন্ত্রর ঘরে ধর্ণায় বসবেন তারা। উল্লেখ্য সংসদে ৩৭০ ধারা সংশোধনি বিল পেশের দিন সভাকক্ষ থেকে ওয়াক আউট করে তৃণমূলের সাংসদরা। তৃণমূলের এই সিন্ধান্তকে কটাক্ষ করে সিপিএম এর তরফে জানান হুয়, পরোক্ষ ভাবে বিজেপিকে সহযোগিতা করেছে তৃনমূল। এবার সেই একই মঞ্চ থেকে কেন্দ্রের বিরোধিতা করতে দেখা যাবে তৃণমূলকে সিপিএম কে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here