kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: করোনা সংক্রমণ বিপজ্জনক ভাবে বাড়তে থাকলেও রাজ্যে বিধানসভা ভোটের সূচিতে কোন পরিবর্তন হচ্ছে না বলে গতকালই জানিয়ে দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। আজ কমিশনের ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকেও বেশিরভাগ রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে ভোটের সূচি অপরিবর্তিত রাখার পক্ষেই সওয়াল করা হয়েছে। এদিনের বৈঠকে ভোটের দিন সংক্ষেপের পক্ষে দাবি জানিয়েছে একমাত্র তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে, বিজেপি ও সংযুক্ত মোর্চা উভয় পক্ষই সূচি মেনে নির্বাচনের পক্ষে। কাজেই রাজ্যে ভোট সূচিতে পরিবর্তনের সম্ভাবনা আর রইল না বললেই চলে। তবে করোনা বিধি মেনে প্রচার ও ভোটগ্রহণের ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্কতা বজায় রাখার অঙ্গীকার করা হয়েছে সব দলের তরফে।

ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণে ভোট নিয়ে সব পক্ষের মতামত জানতে এদিন কলকাতায় বৈঠক ডাকে নির্বাচন কমিশন। ওই বৈঠকে স্বীকৃত সব রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা ছিলেন। বৈঠকে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, এই পরিস্থিতিতে শেষ তিন দফার ভোটগ্রহণ যদি এক দফায় করা হতো, তবে মানুষের জীবন অনেক বেশি সুরক্ষিত থাকত বলে আমরা মনে করি। তাই কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে আমরা কমিশনকে শেষ ৩ দফার ভোট এক দিনে করার আর্জি জানিয়েছি। তবে সেই দাবিতে কমিশনের অনুমোদন মিলেছে কি না, সে বিষয়ে কিছু বলেননি পার্থ।

বৈঠক শেষে বিজেপি নেতা স্বপন দাশগুপ্ত বলেন, রাজনৈতিক দলগুলি করোনা বিধি মেনেই ভোটপ্রচার করছে। সবাইকে মাস্ক পরতে বলা হচ্ছে। কিন্তু কেউ মাস্ক না পরলে কী করব? আমরা চাই এতদিন যেভাবে ভোটপ্রচার হয়েছে বাকি জায়গাগুলিতেও সেভাবেই প্রচার হোক। এতে ভারসাম্য বজায় থাকবে। বিজেপি নেতা শিশির বাজোরিয়া বলেন, ভোটপ্রচার বন্ধ হলে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হবে ছোট দলগুলি ও নির্দল প্রার্থীরা। কারণ তাদের কাছে অনলাইনে প্রচারের মতো পরিকাঠামো নেই।

সিপিএম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বৈঠক থেকে বেরিয়ে বলেন, ‘আমরা কমিশনের কাছে কোভিড প্রোটোকল জানতে চেয়েছি। অক্ষরে অক্ষরে তা মেনে আমরা প্রচার করব। আমরা চাই অবশিষ্ট ভোট ৪ দফাতেই হোক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here