kolkata news
Highlights

  • তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের উপস্থিতিতে বাড়িতে চলল লুটপাট
  • ঘর থেকে বের করে দেওয়া হল সব আসবাবপত্র
  • এই ঘটনাটি সাগরদিঘি গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান অরূপ মণ্ডল ও পঞ্চায়েত সদস্য আব্দুল আলিমের উপস্থিতিতে ঘটেছে বলে অভিযোগ


নিজস্ব প্রতিনিধি, সাগরদিঘি:
তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের উপস্থিতিতে বাড়িতে চলল লুটপাট। বের করে দেওয়া হল বাড়ির সব আসবাবপত্র। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়াল মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘি থানার হলদি এলাকায়। জানা গিয়েছে, বসতবাড়ির সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কলিমুদ্দিন ও গিয়াসুদ্দিন নামে দুই ভাইয়ের মধ্যে বিবাদ চলছিল। এই নিয়ে জঙ্গিপুর কোর্টে এখন মামলাও চলছে।

অভিযোগ, মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া সত্ত্বেও বড় ভাই কলিমুদ্দিনকে জোরপূর্বক ভাবে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি বাড়ির সমস্ত আসবাবপত্র বাইরে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রায় লক্ষাধিক টাকা লুট করা হয়েছে। আর পুরো এই ঘটনাটি সাগরদিঘি গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান অরূপ মণ্ডল ও পঞ্চায়েত সদস্য আব্দুল আলিমের উপস্থিতিতে ঘটেছে বলে অভিযোগ করছেন কলিমুদ্দিন। কলিমুদ্দিনের দাবি, তিনি এখন বিজেপি দলের যুব মোর্চার সদস্য। অন্যদিকে, তার ভাই গিয়াসউদ্দিন তৃণমূল পার্টি করেন। গিয়াসুদ্দিন তৃণমূলের প্রধান অরূপ মণ্ডল ও পঞ্চায়েত সদস্য আব্দুল আলিমকে ডেকে এনে তার বাড়িতে আক্রমণ করেছে।

এর পাশাপাশি তার অভিযোগ, জঙ্গিপুর আদালত এক নির্দেশনামায় বসত বাড়ির মাপজোক করার জন্য সাগরদিঘি থানার ওসি ও সাগরদিঘি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানকে দায়িত্ব দিলেও তারা কোনও ব্যবস্থা নেননি। এই বিষয়ে সাগরদিঘি এলাকার বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি ভবানীপ্রসাদ চ্যাটার্জী বলেন, কলিমুদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে আমার সঙ্গে বিজেপি পার্টি করেন। ফলে আক্রোশের বসে তৃণমূলের প্রধান তার অনুগামীদের নিয়ে কলিমুদ্দিনের বাড়িতে লুটপাট করেছেন। যদিও সাগরদিঘি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান অরূপ মণ্ডলের দাবি, যখন লুটপাটের ঘটনা ঘটে, তখন তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here