pandabeswar

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রথম চার দফার ভোট পর্ব শেষ পশ্চিমবঙ্গে। চার দফার ভোটেই বিক্ষিপ্ত অশান্তির চিত্র ধরা পড়েছে বিভিন্ন জায়গায়। পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী জিতেন্দ্র তিওয়ারি ও তৃণমূল প্রার্থী নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীর বাকযুদ্ধ অব্যাহত। শনিবার রাত্রে পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভার দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের পাটশাওড়া গ্রামে এক ব্যবসায়ীর দোকানের বাইরে বোমাবাজির ঘটনা ঘটে।

ব্যবসায়ী প্রদীপ মণ্ডল জানান, শনিবার রাতে বোমার আওয়াজ পেয়েছিলেন তিনি আজ সকালে দোকান খুলতে এসে দেখেন নিজের দোকানের বাইরে বোমা মারার চিহ্ন। এই ঘটনায় তিনি ও তাঁর পরিবার আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। স্থানীয় বিজেপি নেতা সোমনাথ ভাণ্ডারী জানান, যেহেতু গতকাল তাঁরা এলাকায় বিজেপি প্রার্থীর পোস্টার লাগাচ্ছিলেন এবং ওই দোকানের বাইরে তাঁরা প্রায়ই বসে থাকেন। সেই কারণেই এলাকায় আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা এই বোমাবাজির ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী জিতেন্দ্র তিওয়ারি। তিনি তৃণমূল প্রার্থী নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন, নরেন বাবু এলাকায় বোমা, পিস্তলের রাজনীতি করছেন। মানুষকে ভয় দেখিয়ে ভোট নেওয়ার চেষ্টা করছেন। বিজেপি প্রার্থীর অভিযোগ, তিনি বেশ কয়েকজন স্থানীয় তৃণমূল নেতার নামে ফরিদপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন এবং পুলিশ যদি তাঁদের বিরুদ্ধে সদর্থক ব্যবস্থা না নেয় সেক্ষেত্রে  আগামী দিনে বৃহত্তর আন্দোলনে নামবেন তিনি।

অন্যদিকে, বিজেপির সব অভিযোগ অস্বীকার করে ইছাপুর পঞ্চায়েতের উপপ্রধান উজ্জ্বল মণ্ডল জানান, এই ঘটনার পিছনে তৃণমূলের কোনও হাত নেই। বরং তিনি অভিযোগ করেন এ ঘটনার পিছনে বিজেপি দুষ্কৃতীদের হাত রয়েছে। কারণ বিজেপি এলাকায় আতঙ্ক ছড়ানোর চেষ্টা করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here