Parul

মহানগর ডেস্ক: Being human এ এবার আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ উঠল ভাইজান এর উপর। আর এই প্রতারণায় নাম জড়িয়েছে সালমান খানের সঙ্গে তার বোন আলভিরা সহ আরো ৬ জনের। সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে যে, অরুণ গুপ্তা নামে এক স্থানীয় ব্যবসায়ী ভাইজান ও তার বোন আলভিরা সহ ছয়জনের বিরুদ্ধে এই প্রতারণার অভিযোগ করেছেন।

ads

অভিযোগ উঠেছে, Being human এর ফ্র্যাঞ্চাইজির জন্য ওই ব্যবসায়ীকে সংস্থার তরফে দু কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে বলা হয়েছিল। সেই মতোই তিনি ২০১৮ সালের Being human এর একটি এক্সক্লুসিভ স্টোর খোলেন। কথা ছিল সালমানের তরফ এ শোরুম এর জিনিসপত্র ও ক্রেতাদের বোঝানোর জন্য কর্মী দেওয়া হবে। এমনকি জানা যাচ্ছে যে, ওই শোরুমটি প্রমোশন সালমান খান নিজে করবেন বলেও জানানো হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটি হয়নি। পরবর্তীতে সেখানে এসেছিল সালমান খানের ভগ্নিপতি আয়ুষ শর্মা প্রমোশন করেন। এমনকি ওই শোরুমে Being human এর পক্ষ থেকে কোনো সামগ্রী বা কর্মী এখনো পর্যন্ত সরবরাহ করা হয়নি।

অন্যদিকে ব্যবসায় লাভের আশায় এবং দেশের সবথেকে বড় অভিনেতার আশ্বাস পেয়ে এই স্টোরটি খুলে ফেলেন অরুণ গুপ্তা। কিন্তু ব্র্যান্ড খুলে ফেলার কিছুদিন পরেই তার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করতে থাকেন সালমান খান ও তার বোন। এমনকি সালমান খানকে চিঠি পাঠানো হলেও তার থেকে কোনো জবাব পাওয়া যায়নি। তাই শেষমেষ ২০২০ সালে স্টোরটি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন অরুণ গুপ্তা।

বিপুল অঙ্কের টাকার ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার পর পুলিশের কাছে দ্বারস্থ হয়েছিলেন চণ্ডীগড়ের ওই ব্যবসায়ী। সালমান খান, আলভিরা খান সহ আরও ৬ জন প্রতারক এর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন ওই ব্যবসায়ী। আর তারপরেই আগামী ১৩ জুলাই অর্থাৎ মঙ্গলবার চন্ডিগড় থানায় বলিউডের দাবাং ও তার বোন সহ ৬ জনকে হাজির থাকতে বলেছে চন্ডিগড় পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here