kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাবড়া: স্বামী ও স্ত্রীর সাংসারিক অশান্তি। দুই শ্যালক এসে জামাইবাবুকে বেধড়ক মারধর করে কুপিয়ে ঠোঁট ছিড়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন আক্রান্ত ব্যক্তি। হাবড়া থানার জয়গাছি ৩০ নম্বর রেল গেট এলাকার ঘটনা। আহত পরিমল দাসের স্ত্রী নুপুর দাস জানান, গত রবিবার নিজেদের ভেতর কথা কাটাকাটি হচ্ছিল, সেই সময় তার দুই ভাই দুলু সিকদার এবং নির্মল সিকদার বাড়িতে এসে তার স্বামীকে বেধড়ক মারধর করে এবং বটি দিয়ে ঘাড়ে কোপ দেয়। ঠোঁট ছিড়ে দেয়।

রক্তাক্ত অবস্থায় সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে প্রথমে হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে ঘাড়ে এবং ঠোঁটে মিলিয়ে একুশটি সেলাই পড়ে। পরবর্তীতে অবস্থা খারাপ হলে বারাসত হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসকরা। এই মুহূর্তে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বারাসত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। মঙ্গলবার পরিবারের তরফে হাবড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় অভিযুক্ত দু’জনের বিরুদ্ধে।

আক্রান্তের স্ত্রীর অভিযোগ, তার স্বামী গণ্ডগোল করলেও কখনই মাত্রা ছাড়াতেন না। শুধুশুধু তার ভাই ও দাদা তার স্বামীর ওপর আক্রমণ করেছে। পাশাপাশি এলাকাবাসীর অভিযোগ, প্রায়শই স্বামীও স্ত্রীর মধ্যে বচসা লেগে থাকত। আর এই নিয়ে গণ্ডগোল চলত। তাদের আরও অভিযোগ, অশ্লীল ভাষায় ঝগড়াঝাঁটি করতেন ওই দম্পতি। এই মর্মে এলাকাবাসী একবার মাস পিটিশন দায়ের করে পুলিশের কাছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্তদের খোঁজে পুলিশ গিয়েছিল। অভিযুক্ত দু’জনই পলাতক। তদন্তে হাবড়া থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here