kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বনগাঁ: সহযোগীকে খুন করে জলের মধ্য দিয়ে টেনে নিয়ে এসে বাড়ির পেছনে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। নিহতের নাম বাসুদেব মণ্ডল (৪১)। মঙ্গলবার রাতে ঘটিনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার  বনগাঁ থানার রামচন্দ্রপুরে এলাকায়। অভিযুক্ত সবুর ও বাসুদেব একইসঙ্গে রাজমিস্ত্রির কাজ করত বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্তকে আটক করেছে বনগাঁ থানার পুলিশ।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে,  মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন বাসুদেব। রাত দশটা নাগাদ পাশের গ্রাম ভেরের বাসিন্দা সবুর মণ্ডল তাকে বাড়ির পেছনে রেখে খবর দেয় মদ্যপ অবস্থায় পড়ে আছে বলে। খবর পেয়ে বাড়ির লোক ছুটে গিয়ে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় দ্রুত তাকে বনগাঁ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু, চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরিবারের দাবি, সবুর খুন করেছে বাসুদেবকে। খুনের পর জলের মধ্যে দিয়ে টানতে নিয়ে এসে বাড়ির পেছনে ফেলে যায়। পরে সে-ই বাড়িতে খবর দেয়।

পরিবারের পক্ষ থেকে সবুরের বিরুদ্ধে বনগাঁ থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে বনগাঁ থানার পুলিশ অভিযুক্ত সবুর মণ্ডলকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। অভিযুক্ত সবুরের কঠোর শাস্তির দাবি জানান নিহতের পরিবারের লোকজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here