মহানগর ওয়েবডেস্ক: কৃষি বিলকে কৃষক বিরোধী, অসাংবিধানিক ও অগণতান্ত্রিক আখ্যা দিয়ে সরকার, বিজেপি ও তার জোট সঙ্গীদের বিশেষ করে আকালি দলকে আদালতে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দিলেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। তিনি জীবনের শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করা পর্যন্ত রাজ্যের কৃষকদের স্বার্থরক্ষার লড়াই চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা করলেন।

‘’যে মুহূর্তে এই বিল রাষ্ট্রপতির সম্মতি পেয়ে আইনে পরিণত হবে সেই মুহূর্তে আমরা এই ভয়ঙ্কর আইনের বিরুদ্ধে আদালতে গিয়ে লড়াই শুরু করব’’ বলে  জানান অমরিন্দর সিং। যে ভাবে রাজ্যসভায় ‘গা জোয়ারি’ করে বিজেপি এই বিল পাশ করিয়েছে সেটা দেখে বিস্মিত হয়ে গিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বিতর্কিত ও ‘পাপপূর্ণ’ এই বিলের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে অমরিন্দর সিং বলেন, এই বিলের মাধ্যমে রাজ্যের ক্ষমতার ওপর প্রকাশ্যে হস্তক্ষেপ করা হয়েছে এবং কৃষি ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিরোধীদের প্রবল আপত্তি থাকা সত্ত্বেও শুধুমাত্র সংখ্যাধিক্যের জোরে ধ্বনি ভোটে এই বিল পাশ হওয়া নিয়েও বিস্ময় প্রকাশ করেন কংগ্রেসের নেতা। এই ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিল নিয়ে ভোটাভুটি হলে সেটা এনডিএ জোটকেও বিভাজিত করে দিত বলে তিনি মনে করেন।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কৃষি সমাজকে ভেঙে দেওয়ার, কৃষকদের অধিকার কেড়ে নেওয়ার নির্মম আইন তারা মানবেন না। কৃষি পঞ্জাবের জীবনী শক্তি। রাজ্যকে ধ্বংস করে দেওয়ার কেন্দ্রীয় চক্রান্ত, যাদের নির্লজ্জ ভাবে সমর্থন করছে শিরোমনি আকালি দল তারা রুখে দিতে বদ্ধপরিকর।

এক বিবৃতিতে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘’আমরা কৃষকদের স্বার্থ রক্ষার জন্য যা করণীয় করব।‘’ এই আইন প্রণয়নের ফলে কৃষকদের কী হবে সেটা নিয়ে বিজেপি ও তাদের জোটসঙ্গী বিন্দুমাত্র চিন্তিত নয় বলে মন্তব্য করে অমরিন্দর জানান, কেন্দ্রের শাসক দল ও তার সঙ্গীরা কৃষকদের স্বার্থ বহুজাতিক কোম্পানির কাছে বিক্রি করে দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here