নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জুলাই মাস শুরু হতেই সাধারণত ২১ জুলাইয়ের লক্ষ্যে তৎপরতা তুঙ্গে সঙ্গে দেখা যায় তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরে। তবে করোনায় বদলে গিয়েছে এ বছরের দৃশ্যটা। প্রতি বছরের মতো ধর্মতলার ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে এবার আর একুশে জুলাই মঞ্চ বাঁধা হবে না। তবে পুরোপুরি বাড়িতে হাত গুটিয়ে বসে থাকতেও নারাজ দল। যেহেতু সব জমায়েতের ক্ষেত্রেই এখন অনলাইন ভরসা। ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠান এবার হতে চলেছে অনলাইনে, শুক্রবার এমনটাই জানা গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে।

করোনাকে রুখতে এ বছর ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠান ‘কম্প্রোমাইজে’ রাজি ছিলেন খোদ তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্তত কিছুদিন আগে নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে তেমনটাই আভাস দিয়েছিলেন তিনি। তবে দলীয় কর্মীদের ইচ্ছা, প্রশাসনিক কাজ থেকে শুরু করে মিটিং-মিছিল যদি ভার্চুয়ালি করা যায়, তাহলে ২১শে জুলাই এর অনুষ্ঠান হোক ভার্চুয়ালি।

শুক্রবার এই বিষয়েই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কালীঘাটের বাড়িতে চলে দীর্ঘ বৈঠক। সেই বৈঠকেই আগামী ২১শে জুলাইয়ের অনুষ্ঠান ভার্চুয়ালি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। দলীয় সূত্রে খবর, কালীঘাটের মিলনী সংঘের মাঠে শহিদ বেদি করে সামাজিক দূরত্ব মেনে পালন করা হতে পারে ২১শে জুলাই। এই পুরো বিষয়টাই দেখানো হবে অনলাইনে।

অন্যদিকে, ২১শে জুলাই উপলক্ষে এক দিন আগে থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে তৃণমূলকর্মী সমর্থকরা আসতে শুরু করেন কলকাতায়। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা দলীয় কর্মীরা কলকাতার বিভিন্ন প্রান্তে ক্যাম্প বানিয়ে রাত কাটান। তবে এবার ২১শে জুলাই উপলক্ষে জেলা থেকে কর্মী-সমর্থকদের কলকাতায় আসার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দল। সে সেক্ষেত্রে জেলাতেও সামাজিক দূরত্ব মেনে ২১ জুলাই পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here