kolkata bengali news

ডেস্ক: ক্লালিম্পং-এ এসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি কটাক্ষ করেছিলেন, ‘পাকিস্তান মমতার মাসতুতো ভাই৷’ রায়গঞ্জে অমিতের হুংকার, তৃণমূল কংগ্রেসের আমলে বাংলায় চাপা পড়েছে রবীন্দ্র সঙ্গীত৷ বাংলার সংস্কৃতিকে রক্ষা করতে কোনও কসুর করা হবে না বলেও আরও একবার জানিয়ে দেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি৷ এদিন অমিত শাহ একের পর এক তৃণমূল বিরোধীতার সুর চড়িয়ে গেলেন প্রচার সভা থেকে৷ মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে তিনি বলেন, মোদীর পাঠানো সমস্ত টাকাই চলে গিয়েছে গুণ্ডাদের দখলে৷ চিটফান্ড সব টাকা খেয়ে নিয়েছে৷ গরীবের টাকা বেশিদিন হজম করতে পারবেন না মুখ্যমন্ত্রী, দিদিকে বিঁধে বলেন অমিত৷ শুধু তাই নয়, এদিন অমিতের আরও অভিযোগ, দিদির আমলে শিল্প শেষ হয়ে গিয়েছে, তার বদলে বাংলায় গুচ্ছ গুচ্ছ বোমার কারখানা গড়ে উঠেছে৷ কালিম্পং-এর পর বৃহস্পতিবার রাজ্যে রায়গঞ্জে বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরীর সমর্থনে সভা করেন অমিত শাহ৷ এরপরেই আত্মবিশ্বাসের সুরে অমিত বলেন, ২৩ মে আপনার দিন শেষে হবে, আপনি শুধু ‘ইলু ইলু’ করুন৷

এদিন দিদির উদ্দেশ্যে অমিতের প্রশ্ন, অনুপ্রবেশকারীদের জন্য দিদির এত কষ্ট হচ্ছে কেন৷ অসম থেকে বাঙালি খেদাও প্রসঙ্গে বারে বারে ঘৃন্য রাজনীতি করছে বিজেপি, এই অভিযোগ তুলে একাধিক সভামঞ্চ থেকে মোদীকে দুষে গিয়েছেন মমতা, বাংলায় এসে বাঙালিদের গায়ে হাত দিয়ে দেখান এমনও চ্যালেঞ্জ ছুড়তে দেখা গেছে দিদিকে, তবে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা জবাব দিয়ে অমিত বললেন, বাংলায় নাগরীকপঞ্জী চালু হবে৷ মা-মাটি-মানুষ স্লোগান দিয়েছিলেন মমতা। মা থেকে মমতা চলে গিয়েছে। মাটি অনু্প্রবেশকারীদের বেচে দিয়েছেন। এরপরেই অমিত বলেন, অসমের মতো বাংলাতেও এনআরসি আনব। যত ক্ষমতা আছে, আটকে দেখাও। এক এক জন অনুপ্রবেশকারীকে বাংলার খাঁড়িতে ফেলব। যদিও এদিন বাঙালি শ্মরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়ে দেন৷ শিলিগুড়িতে প্রথম প্রচারে এসে মোদী পাহাড়ের মানুষের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, কারও কোনও অসুবিধে হতে দেব না, এনআরসি ইস্যুতে এবার মোদীর সেই সুর কিছুটা হলেও শোনা গেছে অমিত শাহের গলায়৷

এদিন বাংলা ভাষার আবেককে উস্কে দিয়ে দাঁড়িভিট প্রসঙ্গ টেনে অমিত শাহ বলেন, তৃণমূলের পুলিশের গুলিতেই বাংলা ভাষার শিক্ষকের দাবিতে আন্দোলনকারী দুই ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে৷ দিদি উর্দু ভাষাকে চালু করতে চেয়েছেন৷ এখানেই শেষ নয়, এদিন এই একই ইস্যুতে জনগণের কাছে অমিত শাহ প্রশ্ন করেন আপনারা কোন ভাষায় পড়তে চান? এরপরেই ভারতীয় সেনার সার্জিকাল স্ট্রাইক প্রসঙ্গ টেনে এনে তিনি বলেন, যখন গোটা দেশ ভারতীয় সেনার সাফল্যে মিঠাই বিতরণ করছে তখন দিদি জঙ্গীদের মৃতদেহ দেখতে প্রমাণ চেয়েছেন৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here