kolkata bengali news

ডেস্ক: হাওড়ার পর নদিয়ায় কল্যান চৌবের সমর্থনে সভা করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ একইভাবে গর্জে উঠলেন তৃণমূল সরকার তথা দলের কাণ্ডারি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে৷ এদিন তৃণমূলকে ‘টেরর ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি’ বলে তোপ দাগেন শাহজী৷ হাওড়াতেই মমতাকে নিশানা করে শাহজি বলেছিলেন, মমতাজি শুধু আতঙ্কবাদীদের সঙ্গে ইলু ইলু করুন৷ এবার সরাসরি তার দলকে সন্ত্রাস তৈরির আঁতুড় ঘর বলে ব্যাখ্যা করলেন৷ পুলওয়ামা প্রসঙ্গ টেনে দিদিকে দেগে অমিতের তোপ, পুলওয়ামায় ৪০ জন জওয়ান শহিদ হলেন, মোদী বদলা নিলেন, আর দিদি বলছেন সন্ত্রাসবাদীদের সঙ্গে আলোচনা করুন৷ আতঙ্কবাদীদের সঙ্গে আলোচনা করব না জানিয়ে দিলেন অমিত৷ মোদীর প্রশংসায় অমিত বলেন, মোদীজি আতঙ্কবাদীদের উচিত শিক্ষা দিয়ে দেশকে সুরক্ষিত করেছেন৷ সন্ত্রাসবাদীরা গুলি মারলে আমরা গোলা মারব হলে এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দেন অমিত৷

এদিন মমতাকে কটাক্ষ করে তিনি আরও বলেন, আমরা যেখানে যেখানে যাচ্ছি সেখানেই সভা করছে মমতা৷ এনআরসি নিয়ে আরও একবার বিজেপির অবস্থান যে অনড় জানিয়ে দেন অমিত৷ এদিন বর্ধমানের একই দিনে জনসভা ছিল মুখ্যমন্ত্রীর৷ সেখানে বিজেপির বিরুদ্ধে হুংকার ছেড়ে মমতা বারে বারে জানিয়ে দিয়েছেন এনআরসি করতে দেব না৷ হিম্মত থাকলে গায়ে হাত দিয়ে দেখাও৷ দিদিতে জবাব দিয়ে কৃষ্ণনগর থেকে অমিত বললেন, এনআরসি হবেই, আমরা বদ্ধপরিকর৷ তবে শরণার্থীদের চিন্তা করার দরকার নেই, বাংলাদেশ থেকে যেসব হিন্দু, খ্রীষ্টান, বৌদ্ধরা এসেছেন তারা ভয় পাবেন না সেকথাও আগাগোড়াই জানালেন মোদী সেনাপতি৷

এতদিন সিপিএম, কংগ্রেস ও বিজেপি আঁতাত করছে বলে বারে বারে কটাক্ষ করেছে দিদি৷ এবার দিদিকে পাল্টা বিঁধে বললেন, সিপিএম ও কংগ্রেসকে ভোট দেওয়া মানে তৃণমূলকে ভোট দেওয়া৷ বাংলায় সিন্ডিকেট ধ্বংস করব বলেও হুঁশিয়ারি দেন অমিত৷ মানুষের উদ্দেশ্যে অমিত বলেন, আমাদের ২৩ টি সিট দিন আমরা সিন্ডিকেট ধ্বংস করব৷ মানুষের উদ্দেশ্যে অনুরোধের সুরে বলেন, আপনারা কংগ্রেস, সিপিএম ও তৃণমূলকে সুযোগ দিয়েছেন, তারা বাংলার বিকাশ করতে পারেনি , এবার বিজেপিকে সুযোগ দিন, সোনার বাংলা গড়ে দেব৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here