মহানগর ওয়েবডেস্ক: ক্রমবর্ধমান করোনা সঙ্কটে নাজেহাল গোটা দেশ। তারই মাঝে বাংলায় শুরু হয়েছে একুশের বিধানসভা লড়াইয়ের তোড়জোড়। ইতিমধ্যেই নবান্ন দখলের লড়াইয়ে রাজ্য বিজেপির অন্দরে ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে গেরুয়া শিবির। তুলে আনা হয়েছে একাধিক নতুন মুখ। সেই আবহেই এবার বঙ্গবাসীর মন পেতে আগামী ৮ জুন পশ্চিমবঙ্গে ভার্চুয়াল সমাবেশ করতে চলেছে রাজ্য বিজেপি। ডিজিটাল এই সমাবেশে মুখ্য অতিথি হিসেবে থাকছেন বিজেপি নেতা অমিত শাহ।

 

গত সোমবার অমিত শাহর এই সমাবেশ সম্পর্কে সংবাদমাধ্যমকে জানান রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন মোদী সরকার ২.০-র প্রথম বছরের নেওয়া একাধিক পদক্ষেপ ও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা রাজ্যবাসীর সামনে তুলে ধরতেই অনলাইনে এই সমাবেশ করছেন অমিত শাহ।  ৮ জুন থেকে ৫ দিন ধরে চলবে এই সমাবেশ। করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কারণেই সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে করা হচ্ছে এই জনসভা। দিলীপ ঘোষের কথায়, সাধারণ জনসভার মত এখানেও একাধিক বক্তা থাকবেন। তার মাঝে প্রধান বক্তা হিসেবে থাকছেন অমিতজি। দিল্লিতে বসেই অনলাইনে রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন তিনি।

 

বিজেপি সূত্রে খবর ৮ জুনের ওই ভার্চুয়াল সভায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্য তৃণমূল সরকারের ব্যর্থতা ও সম্প্রতি ঘটে যাওয়া প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড় আমফানে তৃণমূল সরকারের ব্যর্থতা তুলে ধরবেন অমিত শাহ। পাশাপাশি তুলে ধরা হবে বড়সড় এই দুই বিপর্যয় রাজ্যের মানুষকে সাহায্য করতে বিজেপি নেতা ও সাংসদদের কিভাবে আটকেছে সরকার। প্রশ্ন তোলা হবে কেন বিজেপি নেতাদের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলিতে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। অথচ তৃণমূল নেতারা সেই সমস্ত এলাকায় অবাধ বিচরণ করে গিয়েছেন। সব মিলিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল সরকারকে চরম বিপাকে ফেলার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে বিজেপি।

 

প্রসঙ্গত, ১ মার্চ কলকাতায় শেষবার সভা করে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে সেবার চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানাতে দেখা গিয়েছিল তাকে। এদিকে করোনা পরিস্থিতি কিছুটা বিপাকে ফেললেও আগামী রাজ্য বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে ইতিমধ্যেই কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়েছে গেরুয়া শিবির। সোমবারই একুশের লক্ষ্যে সৈনদল সাজিয়ে ফেলেছে বিজেপি। যেখানে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে দলের দায়িত্বে তুলে আনা হয়েছে অর্জুন সিং সব্যসাচী দত্ত একাধিক নতুন মুখ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here