kolkata bengali news

ডেস্ক: আগামীকালই তৃতীয় দফার নির্বাচন, তার আগে তিলোত্তমার নিউটাউনে এসে রাজনৈতিক উত্তার আরও একটু বাড়িয়ে দিলেন সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। মমতার বাংলায় এসে বক্তব্যের প্রথমেই জোর গলায় আওয়াজ তুললেন, ভারতে ফের মোদী সরকারই আসবে। সঙ্গে বাংলাতেও উড়বে গরুয়া ধ্বজা।

বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগে থেকেই বলে আসছেন যে, ৪২-এ ৪২ হবে। সেই ‘তত্ত্ব’ খারিজ করে অমিত শাহের সাফ বক্তব্য, বাংলায় অনেক ভালো করবে বিজেপি সরকার। তাঁর দাবি,

মোদীর বিপক্ষে এমন কোনও নেতাই নেই দেশে। পাশাপাশি, দেশজুড়ে এনআরসি, নাগরিকপঞ্জী লাগু করা হবে বলেও হুঙ্কার ছাড়েন তিনি। বিজেপির প্রস্তাবিত ইস্তেহার নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। তার জবাব স্বরূপ অমিত বলেন, ইস্তেহারে দেশের সবচেয়ে বড় ইস্যুগুলিকেই রাখা হয়েছে। নিরাপত্তা নিয়ে ভাবা হয়েছে, দেশের মানুষের সুরক্ষা নিয়ে ভাবা হয়েছে। একইসঙ্গে তিনি বলেন, মমতার নিজের রাজ্যে লোকতন্ত্র বলে কিছু নেই, উল্টে মমতাই গণতন্ত্র নিয়ে কথা বলেন।

এমন ভাষাতেই মমতা সরকারকে আক্রমণ করেন অমিত।

ভোটের আবহে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা নিয়ে খোঁচা দেন অমিত। বলেন, বাংলায় মুখ্যমন্ত্রী একটি ভয়ের আবহ তৈরি করে রেখেছেন, মানুষকে আর্জি জানান তার মোকাবিলা করার জন্য। অমিতের দাবি,

বাংলায় ভোট করতে দেওয়া হচ্ছে না। অন্যদিকে, রাজ্যের পুলিশ রাজনৈতিক নেতাদের মতো আচরণ করে। অমিতের মন্তব্য, বাংলায় অনুপ্রবেশ শুধুমাত্র বিজেপির পক্ষেই রোখা সম্ভব, তৃণমূলের সরকারের অত্যাচার শুধু বিজেপিই ঠেকাতে পারে। পাশাপাশি দাবি করেন, ২০২২ সালের মধ্যে গোটা দেশে কোনও গরীব থাকবে না। প্রত্যেকের ঘরে বিদ্যুৎ, জল পরিষেবা থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here