আমার কেরিয়ার গড়েছে অমৃতা! প্রাক্তন স্ত্রীয়ের প্রশংসায় সইফ

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিবাহ-বিচ্ছেদের ১৫ বছর পার হয়ে যাওয়ার পরেও একে অপরের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক রেখে চলেছেন সইফ আলি খান এবং অমৃতা সিং। দুজনেই নিজের জীবনে অনেকটা পথ এগিয়ে গিয়েছেন। তবে অভিনয়ে জগতে সইফকে তিনি কতটা সাহায্য করেছেন তা কোনও দিনও প্রকাশ্যে আনেননি অমৃতা। যদিও তিনি সেই প্রসঙ্গে কথা না বললেও সইফ কিন্তু নিজের কেরিয়ারের সমস্ত ক্রেডিটাই দিলেন প্রাক্তন স্ত্রী অমৃতা সিং-কে। তাঁর কারণেই তিনি আজ এই জায়গায় পৌঁছেছেন এবং অভিনয়ে খ্যাতি অর্জন করেছেন। কীভাবে কাজকে গম্ভীরভাবে নিতে হয় তা শিখিয়েছেন অমৃতা, বললেন সইফ। নিজের কেরিয়ারের একটা বড় অংশ অমৃতাকে উৎসর্গ করলেন তিনি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে সইফ জানান, ‘২০ বছর বয়সে ঘর থেকে পালিয়ে বিয়ে করে নিয়েছিলাম। আমার কাজ, ব্যবসা সমস্ত কিছুই অমৃতা, আমার প্রাক্তন স্ত্রীয়ের সাহায্যেই হয়েছে। সে আমাকে শিখিয়েছে জীবনে কোনও টার্গেটে পৌঁছোতে গেলে মনযোগ দিতে হবে, মজা বা ঠাট্টা করলে তা কখনও করা সম্ভব নয়। আর এরপর থেকেই সমস্ত কিছু নতুন করে শুরু করি। অভিনয়ে মন লাগত না। এমনকি ছেড়ে দেওয়ায়ও সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলাম। কিন্তু সেই সময় অমৃতাই আমায় বলে নতুন করে সমস্ত কিছু শুরু করতে। কাজকে ভালবাসতে। তাই আমি আজ যেই জায়গায় পৌঁছেছি তার সমস্ত ক্রেডিট দিতে চাই অমৃতাকে।’

১৯৯১ সালে অমৃতার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন সইফ। তাঁদের দুটি সন্তানও আছে। সারা আলি খান সদ্যই বলিউডে নেমেছেন এবং দর্শকদের মন জয় করেন। অন্যদিকে, ইব্রাহিম বলিউডে আসার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ২০০৪ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়। এরপর ২০১২-এ করিনার সঙ্গে দ্বিতীয়বার সাত পাকে বাঁধা পড়েন সইফ। দুজনের একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। তবে সইফ-করিনার ছেলে তৈমুর এখন থেকে শিরোনামে থাকতে শুরু করে দিয়েছে। ছোট নবাব কোথায় যাচ্ছে কী করছে সমস্ত কিছুই বন্দী হচ্ছে পাপারাৎজিদের ক্যামেরায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here