kolkata bengali news

ডেস্ক: একদিকে এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের অনশন ভাঙাতে প্রেস ক্লাবের সামনে উপস্থিত হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে, আরেক অনশন মঞ্চ শুরু হওয়ার দিনই তা তুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল রাজ্যের পুলিশের বিরুদ্ধে।

এদিন আপার প্রাইমারি টেট পরীক্ষার্থীদের অনশনে পুলিশি আক্রমণের অভিযোগ উঠল। সূত্রের খবর, গ্রেফতার করা হয় অনশনকারীদেরও। এদিন থেকে যারা অনশন শুরু করলেন তারা হলেন আপার প্রাইমারীতে শিক্ষকতার করার পরীক্ষায় যোগ্যতা অর্জনকারী বাংলার যুবক যুবতীরা।

আপার প্রাইমারী পরীক্ষা হয়েছিল ১৬ আগষ্ট ২০১৫ সালে। ফল প্রকাশ হয়েছিল ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ সালে। এরপর থেকে নানা টালবাহানা চলতে থাকে নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে। গত ২২ মার্চ ২০১৮-তে সারা দিনব্যাপী ব্যাপক আন্দোলনের পর সরকার বাধ্য হরে ফাস্ট প্রথম দফার তালিকা প্রকাশ করে। কিন্তু তারপর ফের নিশ্চুপ। গত ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ সালে এসএসসি অফিস ঘেরাও করা হয়। ৮ ফেব্রুয়ারী ৮ জন আন্দোলনকারী পরীক্ষার্থীকে বিধানগর নর্থ থানার পুলিশ গ্রেফতার করে। ৮ ফেব্রুয়ারি রাত ৯টায় তার মুক্তি পায়। সেই দিন রাতেই দেখা যায় কমিশন প্রথম দফার ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনের নোটিশ দেয়। সরকার ২০১৬ সালে আপার প্রাইমারীতে শূন্যপদ ঘোষণা করেছিল ১৪৮০০টি। তার মধ্যে ১০% প্যারা টিচারদের জন্য সংরক্ষিত। মানে নতুন ১৩৩২০টি শূন্য পদের জন্য টেট পাস করা যুবক যুবতীদের ডেকেছে এসএসসি। এরপর প্রথম দফার অনুপস্থিত প্রার্থীদের জায়গায় দ্বিতীয় দফার প্রার্থীদের ডাকা হয়। অভিযোগ, এই দ্বিতীয় দফায় ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী থাকা সত্ত্বেপ অপ্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের ডাকা হয়েছে। পিয়োর সাইন্স, ভূগোলে, ইংরেজি, বাংলা বিশয়ের জন্য।

আরো মজার বিষয় হলো নোটিফিকেশন বলা হয়েছিল যে, ইন্টরভিউের ১৫ দিন আগে পর্যন্ত শূন্যপদ আপডেট করা হবে। বিধানসভাতে শিক্ষামন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন, নিউ সেটাপ স্কুলের জন্য আপার প্রাইমারীতে ৭০০০ শিক্ষক নেওয়া হবে।

এই অনশনকারিদের মূল দাবী হচ্ছে…

1)প্রথম দুই দফা ও আগামী দফার এপ্লিকেশন আই ডি ডেট অফ বার্থ সহ মেরিট লিস্ট টেট স্কোর সহ দিতে হবে যাতে দুর্নীতি বন্ধ হয়।

2) ইন্টারভিউ লিস্ট প্রকাশের ১৫ দিন আগের শূন্যপদ, (গেজেট অনুযায়ী) নিউ সেট আপ ভ্যাকেন্সি দিতে হবে।

3)কম স্কোর বাতিল করে তার শূন্যপদ এবং ভেরিফিকেশনে অনুপস্থিত শূন্যপদ সব মিলিয়ে ভ্যাকেন্সি আপডেট করতে হবে।

3) কম স্কোর পাওয়াদের বাতিল করতে হবে নয়তো ঐ স্কোর পর্যন্ত ঐ বিষয়ের সংশ্লিষ্ট ক্যাটাগরির সবাইকে ডাকতে হবে।

4) যদি কোনও বিষয়ের কোনও ক্যাটাগরিতে কোনও অপ্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ডাক পায় তাহলে সকল প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের ডাকতে হবে।

5) দুর্নীতির সাথে যুক্ত আধিকারিকদের শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here