international news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতা পুলিশের অভ্যন্তরে করোনার থাবা এখনও অব্যাহত। রবিবার নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন কলকাতা পুলিশের এসিস্ট্যান্ট সাব-ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার এক আধিকারিক। সূত্রের খবর, ওই পুলিশ আধিকারিক গড়ফা থানায় কর্মরত ছিলেন। গত দুদিন ধরে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি থাকার পর, রবিবার তাঁর লালারস পরীক্ষার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ বলে জানা যায়। এরপরেই তাঁকে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সূত্রের খবর, গত শুক্রবার শারীরিক অসুস্থতা বোধ করায় ওই আধিকারিককে দক্ষিণ কলকাতার একবালপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। জানা গিয়েছে, প্রাথমিক ভাবে করোনার কোনওরকম উপসর্গ ছিল না ওই আধিকারিকের। তবে হাসপাতালে ভর্তি করার পর নিয়মমাফিক তাঁর লালারসের নমুনা পাঠানো হয় কোভিড–১৯ পরীক্ষার জন্য। হাসপাতাল সূত্রে খবর, রবিবারই তাঁর রিপোর্ট এসে পৌঁছায়। জানা যায়, করোনা পজেটিভ কলকাতা পুলিশের ওই আধিকারিক। এরপরই একবালপুরের ওই বেসরকারি হাসপাতাল থেকে বাইপাসের ধারে আরেকটি বেসরকারি কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় তাঁকে। সূত্রের খবর, স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফে খতিয়ে দেখা হচ্ছে, ওই কোভিড আক্রান্ত আধিকারিকের সংস্পর্শে থানার পুলিশ কর্মীরা সহ আর কারা কারা এসেছিলেন। সম্প্রতি তার সংস্পর্শে আসা সকলকেই হোম কোয়ারান্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

গড়ফা থানার এই আধিকারিককে নিয়ে এখনও পর্যন্ত কলকাতা পুলিশের বেশ কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন। তবে করোনাকে জয় করে দ্রুত সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরেছেন প্রায় সকলেই। উল্লেখযোগ্য ভাবে, কিছুদিন আগেই করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে এই মারণ রোগকে পরাজিত করে বাড়ি ফিরেছেন প্রগতি ময়দান থানা ও বউবাজার থানার দুই শীর্ষ আধিকারিক। তাঁদের মধ্যে একজনের স্ত্রীও একই সঙ্গে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিনিও। এছাড়াও করোনাকে হার মানিয়ে হাসপাতাল থেকে মুক্তি পেয়ে পুনরায় কাজে যোগ দিয়েছেন কলকাতা পুলিশের অনেকেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here