ফাইনালে আরেকটি সুপার ওভার হওয়া উচিত ছিল, মত শচীন তেন্ডুলকরের

0
113

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপ মিটে গেলেও কিছুতেই যেন ফাইনাল তথা আইসিসির আজব নিয়মে ইংল্যান্ডের চ্যাম্পিয়ন হওয়াটা এখনও যেন ভুলতে পারছেন না কেউ। নিউজিল্যান্ড কোচ যেমন দাবি করেছেন, আইসিসির উচিত ছিল দুই দলকেই চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা। অন্যদিকে, ‘গড অফ ক্রিকেট’ শচীন তেন্ডুলকরের মতে আইসিসির উচিত ছিল সেইদিন আরও একটি সুপার ওভারের মাধ্যমে খেলার নিষ্পত্তি করা।

রবিবার লর্ডসে ফাইনাল ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে আট উইকেট হারিয়ে ২৪১ রান করে নিউজিল্যান্ড। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে বেন স্টোকসের সৌজন্যে ম্যাচ ড্র করে ইংল্যান্ড। ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। সেখানে প্রথমে ব্যাট করে ১৫ রান করে ইংল্যান্ড। পরে একই রান করে নিউজিল্যান্ডও। অর্থাৎ সুপার ওভারও টাই হয়ে যায়। কিন্তু আইসিসির অদ্ভুত নিয়মে চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায় আয়োজক দেশ ইংল্যান্ড।

কী সেই নিয়ম? গোটা ম্যাচে বেশি বাউন্ডারি মারার কারণে বিশ্বসেরার খেতাব ওঠে ইংল্যান্ডের মাথায়। ম্যাচে ২৬টি বাউন্ডারি মারে থ্রি লায়ন্সরা। অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ড মারে ১৭টি বাউন্ডারি। এই অদ্ভুত নিয়মেই চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায় আয়োজক দেশ।

শচীন তেন্ডুলকরের জানান, ‘আমার মনে হয় আরও একটি সুপার ওভার খেলা উচিত ছিল। শুধু বিশ্বকাপ ফাইনাল বলেই নয়, যেকোনো ম্যাচে এরমই হওয়া উচিত। ফুটবলেও এক্সট্রা টাইম খেলা হয়, নাহলে টাইব্রেকার, সাডেন ডেথ হয়।’

অন্যদিকে, বিরাট কোহলির পাশাপাশি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল নিয়ম পরিবর্তনের দাবি তুললেন মাস্টার ব্লাস্টারও। সেমিতে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে ছিটকে যাওয়ার পর কোহলি বলেছিলেন, আইপিএলের মতো বিশ্বকাপেও প্লে অফ শুরু করা হোক। একই দাবি শচীনেরও।

‘যে দুটি দল প্রথম দুইয়ে শেষ করছে, তাঁদের জন্য অবশ্যই প্লে অফের সুবিধা থাকা উচিত। ওই দুই দল তো পুরো বিশ্বকাপে ভাল পারফর্ম করে তবেই শেষ চারে উঠছে। ফলে তাদের কিছু সুবিধা অবশ্যই পাওয়া দরকার’, বলেন ক্রিকেটের ভগবান।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here