kolkata news

Highlights

  • CAA-এর প্রতিবাদে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গিতে একটি বিক্ষোভে চলল গুলি
  • গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে দু’জনের
  • এখনও জানা যায়নি এই গুলি চালানোর পেছনে কে আছে

নিজস্ব প্রতিনিধি, জলঙ্গি: CAA-এর প্রতিবাদে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গিতে একটি বিক্ষোভে চলল গুলি। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে দু’জনের। কে বা কারা গুলি চালাল, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। এখনও জানা যায়নি এই গুলি চালানোর পেছনে কে আছে। গোটা এলাকায় মোতায়েন আছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে জলঙ্গির সাহেবনগরে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় পথ অবরোধ চলছিল। সেই সময় অবরোধকারীদের লক্ষ্য করে গুলি চালানও হয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় এক বৃদ্ধের। জখম এক জনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর মারা যান। তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। মৃত বৃদ্ধের নাম আনারুল বিশ্বাস(৬৫) ও সালাউদ্দিন সেখ(২০)। গুরুতর আহতদের ডোমকল হাসপাতাল ও মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, মুর্শিদাবাদের জলঙ্গি ব্লকের সাহেবনগর বাজারে সাধারণ নাগরিক মঞ্চ নেতৃত্ব আজ বাজার বন্ধ করে দেয়। আর সেই বাজার খুলে দিতে আসে তৃণমূল কংগ্রেসের কিছু লোক। সেই সময় চলে গোলাগুলি। মৃতদের পরিবারের লোকজনের দাবি, সকলকে গুলি করেন তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি তহিরুদ্দিন মণ্ডল। তবে পুলিশ এখনও এই কথা স্বীকার করেনি।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভের আগুনে ফুঁসছে মুর্শিদাবাদ। রেল অবরোধ করে আগুন লাগানোর ঘটনাও ঘটে এখানে। বুধবার সকালে জলঙ্গির সাহেবনগরে রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন CAA বিরোধীরা। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, সেই সময় অবরোধে বাধা দেয় তৃণমূল। দু’পক্ষের মধ্যে বচসা বেঁধে যায়। হঠাৎ সেখানে গুলি চলে। গুলিবিদ্ধ হয়ে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন আনারুল বিশ্বাস ও সালাউদ্দিন সেখ। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিশাল পুলিশবাহিনী। নিহতদের দেহ ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার পর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। কে বা কারা এই গুলি চালানোর ঘটনায় জড়িত, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here