cricket news

Highlights

  • সিএএ, এনআরসির বিরোধিতায় মুখর গোটা দেশ
  • সেই বিদ্রোহের আঁচ এবার এসে পড়ল ক্রিকেটের মাঠেও
  • নো এনআরসি, নো এনপিআর, নো সিএএ লেখা টিশার্ট পরে মঙ্গলবার ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে নিঃশব্দ প্রতিবাদ দেখালেন একদল যুবক যুবতী

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সিএএ, এনআরসির বিরোধিতায় মুখর গোটা দেশ। সেই বিদ্রোহের আঁচ এবার এসে পড়ল ক্রিকেটের মাঠেও। নো এনআরসি, নো এনপিআর, নো সিএএ লেখা টিশার্ট পরে মঙ্গলবার ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে নিঃশব্দ প্রতিবাদ দেখালেন একদল যুবক যুবতী। ওই সময় আবার মাঠে ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ চলছিল। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনায় শোরগোল পরে যায় রাজনৈতিক মহলে।

ঘটনাটি ঘটে ভারতের ব্যাটিং ইনিংসের সময়। টিভি ক্যামেরায় দেখা যায় একদল যুবক যুবতী নো এনআরসি, নো এনপিআর, নো সিএএ লেখা টিশার্ট পরে দাঁড়িয়ে আছেন গ্যালারিতে। তাদের প্রত্যেকের টিশার্টে অক্ষরগুলি আলাদা আলাদা করে লেখা। তাদের মুখে অবশ্য কোনো স্লোগান ছিল না।

জায়ান্টস স্ক্রিনে এই ঘটনা ধরা পড়তেই একদল সমর্থক আবার পাল্টা ‘মোদি মোদি’ স্লোগান তোলেন। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে আন্দাজ করে আসরে নামে মুম্বই পুলিশ। সাধারণ দর্শকরা ভেবেছিলেন দুই পক্ষের লোকেদেরই স্টেডিয়ামের বাইরে বের করে দেওয়া হবে। কিন্তু তা হয়নি। শুধু যারা নো এনআরসি, নো এনপিআর, নো সিএএ লেখা টিশার্ট পরে এসেছিলেন তাদেরই স্টেডিয়ামের বাইরে বের করে দেওয়া হয়। পাল্টা যারা মোদি মোদি স্লোগান তুলছিলেন তাদের কিছুই করা হয়নি।

পরে এক সাধারণ ব্যক্তি, যিনি ঘটনার সময় গ্যালারিতে ছিলেন জানান, ‘প্রতিবাদ করার একটা নির্দিষ্ট জায়গা আছে। ক্রিকেট মাঠ থেকে রাজনীতিকে দূরে রাখাই শ্রেয়। অনেকে খেলা উপভোগ করতে আসেন। তাদের সমস্যা হতে পারে।’

যদিও এক প্রতিবাদী দৃঢ় যুক্তি সাজিয়ে বলেন,

‘আমরা আইন বিরুদ্ধ কোনো কাজ করিনি। বিসিসিআইয়ের নিয়মই আছে যে কোনো মেসেজ লেখা টিশার্ট পরে মাঠে আসা যায়। শুধু কোনো বিজ্ঞাপন করা যায় না। আমরা কোনো স্লোগান দিই নি। ফলে আমরা কোনও নিয়মও ভাঙিনি। আমাদের উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে বের করে দেওয়া হয়েছে।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here