kolkata bengali news

ডেস্ক: বরাবরের বিতর্কিত তিনি। কখনও চড়াম চড়াম ঢাক তো কখনও পাঁচন। গুড় বাতাসা থেকে নকুল দানা, ভোটের মাঠে সবই তার ক্যাচ লাইন। লোকসভা নির্বাচনের আগে বীরভূমের জেলা সভাপতি তথা দিদির অতি প্রিয় কেষ্ট এবার কমিশনের নজরে। ২০১৯ লোকসভার মাঠে ইতিমধ্যেই হাইলাইট হয়ে গিয়েছেন তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। বিরোধীদের পক্ষ থেকে অনুব্রতর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ দায়েরের পরও খুব বিশেষ সমস্যা হয়নি এই তৃণমূল নেতার। কিন্তু খোদ কমিশনকে নকুলদানা খাওয়াবেন বলেছেন অনুব্রত। যার জেরেই এবার শোকজ করা হল বীরভূমের দাপুটে এই নেতাকে।

মঙ্গলবার বীরভূমের ডিসট্রিক্ট ইলেকশন অফিসার তথা জেলা শাসক শোকজ করলেন অনুব্রতকে। কেন অনুব্রত এহেন মন্তব্য করেছেন ৪৮ ঘন্টার মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে তাঁকে। প্রসঙ্গত, গত ২২ মার্চ বীরভূমের এক সভা থেকে বিরোধীদের জল ও নকুলদানা খাওয়াবেন বলে বিতর্কিত মন্তব্য করেন বীরভূমের জেলাসভাপতি। তবে শুধু সেখানেই থেকে না থেকে পরে নির্বাচন কমিশনকেও জল ও নকুলদানা খাওয়াবেন বলে জানান তিনি। তাঁর এহেন মন্তব্যের জেরে বিরোধীরা অভিযোগ জানায় নির্বাচন কমিশনে। বিরোধীদের অভিযোগের ভিত্তিতে এদিন শোকজ করা হল তাঁকে। জল নকুলদানা বলতে কী বোঝাতে চেয়েছেন অনুব্রত তা কমিশনকে জানাতে হবে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ‘ফুটবে এবার পদ্মফুল বাংলা ছাড়ো তৃণমূল’ এই শিরনামের একটি গান গেয়ে বিতর্কে পড়েছেন বিজেপি নেতা বাবুল সুপ্রিয়। বিজেপির থিম সং বলে দাবি করা ওই গানে তৃণমূলকে নিয়ে জঘন্য ভাষায় আক্রমণ করার অভিযোগ উঠেছে বাবুলের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি অনুমতি ছাড়া কেন ওই গান বাবুল সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করেছেন সে বিষয়ে তথ্য চায় কমিশন। এরপর এবার শোকজ নোটিস পৌঁছল অনুব্রতর কাছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here