নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শনিবার কেন্দ্রীয় বিজেপির তরফে জাতীয় স্তরে পদাধিকারীদের তালিকা প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। আর সেই তালিকায় এদিন বাংলা থেকে দেখা গেল বেশ কয়েকটি মুখ। এদিন বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের যে তালিকা প্রকাশ করেছেন, সেখানে বিজেপি সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি পদ দেওয়া হয়েছে মুকুল রায়কে। এ পাশাপাশি, দীর্ঘদিনের বিজেপি নেতা রাহুল সিনহাকে সরিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক পদ দেওয়া হয়েছে অনুপম হাজরাকে। এছাড়াও বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্র হয়েছেন রাজু বিস্তা।

কেন্দ্রীয় বিজেপি তালিকায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে তিনটি মুখ উঠে এলেও, রাহুল সিনহাকে সরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় এটা স্পষ্ট যে কেন্দ্রীয় স্তরে রাহুলের জনপ্রিয়তা অনেকখানি কমেছে। তার পরিবর্তে বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক পদে নতুন মুখ হিসেবে অনুপম হাজরা আস্থা রাখছেন নাড্ডা। এর পাশাপাশি বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্র হিসেবে মোট ২৩ জনের নাম এদিন ঘোষণা করা হয়েছে। যেখানে ওড়িশার বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্র এর পাশাপাশি নাম উঠে এসেছে দার্জিলিংয়ের বিজেপি সংসদ রাজু বিস্তার। তবে অনুপম হাজরা ও রাজু বিস্তার পাশাপাশি এদিন সবচেয়ে বড় চমকটা দেওয়া হয়েছে মুকুল রায়ের জন্য। প্রায় তিন বছর কোনও পদ ছাড়াই বিজেপিতে কাজ করার পর একেবারে সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি পদে বসানো হয়েছে তাঁকে।

এদিন কেন্দ্রীয় বিজেপির তালিকা প্রকাশ্যে আসার পর স্বাভাবিকভাবেই খুশি মুকুল রায়। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শুরুতেই তিনি ধন্যবাদ জানান, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাকে। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকেও ধন্যবাদ জানান তিনি। বলেন, যে গুরুদায়িত্ব তার উপর দেওয়া হলো তা সম্পূর্ণভাবে পালন করায় এখন তার উদ্দেশ্য। সামনেই বিহার নির্বাচন তারপর পশ্চিমবঙ্গ, আসাম, পুদুচেরি। তবে যেখানে তার জন্মস্থান সেই পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি যাতে ক্ষমতায় আসে তার জন্য সর্বশক্তি দিয়ে লড়াইয়ে নামবেন বলেও জানিয়ে দেন মুকুল রায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here