news national

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরে তার খোঁজে ঘুরে বেরিয়েছে পুলিশ। তবে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে বারবার পালিয়েছে দাউদের অন্যতম সাগরেদ, মুম্বই সিরিয়াল ব্লাস্টের ঘটনায় মোস্ট ওয়ান্টেড ফেরারর আসামি আনোয়ার ঠাকুর। দীর্ঘ চেষ্টার পর অবশেষে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হল দিল্লি পুলিশ। দিল্লির চাঁদবাগ থেকে শনিবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ২২ লক্ষ টাকার সেমি-অটোমেটিক বিদেশী পিস্তল। আনোয়ার ঠাকুরের মত এমন মোস্ট ওয়ান্টেড দুষ্কৃতী গ্রেফতার, দিল্লি পুলিশের জন্য বড় সাফল্য হিসেবে মনে করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৯৯২ সালে দিল্লির সদর বাজার থানায় ঢুকে পুলিশের এক ইনফর্মারকে গুলি করে হত্যা করে আনোয়ার। এই ঘটনায় যাবজ্জীবন সাজা হয় তার। তবে প্যারোলে মুক্তি পেয়ে বেপাত্তা হয়ে যায় ওই দুষ্কৃতী। শুধু বেপাত্তা নয় নতুন করে দুষ্কৃতী মূলক কার্যকলাপে হাত পাকাতে শুরু করে সে। দিল্লির উত্তর-পূর্ব জেলায় নতুন করে চেনু গ্যাংকে সক্রিয় করে তোলার পিছনে তার হাত রয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। সম্প্রতি দিল্লিতে সিএএ প্রতিবাদের সময় যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয় তার তদন্তে নেমে চেনু গ্যাং-এর যোগ পায় পুলিশ। বন্ধুক হাতে একাধিক দুষ্কৃতীর ছবি উঠে আসে পুলিশের খাতায়।

উল্লেখ্য, পুলিশ সূত্রে জানা যায় মুম্বই সিরিয়াল ব্লাস্টের ঘটনায় অভিযুক্ত থাকার পাশাপাশি একটা সময় দাউদ-এর অন্যতম সহচর ছিল এই আনোয়ার। ২০০২ সালে আনোয়ারের ৬ ভাইয়ের মধ্যে আশরাফ নামের একজন পুলিশের গুলিতে নিহত হয়। দাউদের হয়ে কাজ করতো আশরাফ নামের এই দুষ্কৃতীও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here