news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দিল্লিতে তবলিঘি জামাতের আয়োজিত ধর্মীয় অনুষ্ঠান আসলে একটি কঠোর অপরাধের মতোই ঘটনা। দেশে পরিস্থিতি যখন সঙ্কটজনক তখন এই ধরনের অনুষ্ঠানের কোনও প্রয়োজন ছিল না, এমনটাই মনে করেন অভিনেত্রী – পরিচালক অপর্ণা সেন।

দেশে এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩০০০ ছাড়িয়েছে। লক ডাউন করে এই ভাইরাসের সংক্রমনকে রোধ করার চেষ্টা করলেও দিনে দিনে বেড়েই চলেছে এই রোগের প্রাদুর্ভাব। এমনই সময়ে দিল্লিতে তবলিঘি জামাতের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের জেরে শুরু হয়েছে নানা অভাব অভিযোগ।

প্রকাশ্যে না বললেও পরিসংখ্যান দেখিয়ে কেন্দ্র বোঝাতে চেয়েছে এই জমায়েতে হাজির ব্যক্তিদের শরীর থেকেই দেশের বিভিন্ন রাজ্যে অতিদ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে নোভেল করোনা। আর সেই কথা মাথায় রেখেই গতকাল টুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অপর্ণা সেন।

তিনি বলেন, ‘দেশের এই সংকটকলে এই ধরনের জমায়েত কঠোর অপরাধের সমান। এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক। আমি উদারপন্থী এবং ধর্মনিরপেক্ষ। কিন্তু দেশের আইন ভেঙে যদি কেউ এরকম অপরাধ করে, সে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, শিখ, খ্রিস্টান, এথিস্ট যাই সে হোক না কেন সকলের ক্ষেত্রে আইন এক। এমন অপরাধ কোনওভাবে বরদাস্ত করা যায় না।’ গতকাল এরই সঙ্গে তিনি লেখেন, ‘করোনায় আক্রান্তের থেকেও আমাদের দেশে বেশি মানুষ মারা যাবেন অনাহারে।’

দু’ দিন আগেই তবলিঘি জামাতের এই ধর্মীয় অনুষ্ঠান নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে সরব হন সাংসদ – অভিনেত্রী নুসরত জাহান। তিনি বলেন, ‘কয়েকজন দায়িত্বজ্ঞানহীনের জন্য একটা গোটা দেশ এখন বিপাকে’। তার এই মন্তব্যের জন্য অভিনেত্রীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক কুরুচিকর মন্তব্য শুনতে হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here