ডেস্ক: ভাঙড়ে হিংসার ফলে এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনার পর মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে সম্প্রতি গ্রেপ্তার করা হয়েছে সেখানকার বেতাজ বাদশা আরাবুল ইসলামকে। জেলবন্দি অবস্থাতেও পঞ্চায়েত নির্বাচনে পঞ্চায়েত সমিতিতে জয়ী হয়েছেন আরাবুল। আর তারপরই মুখ্যমন্ত্রীর সহানুভূতি আদায় করেছেন তিনি। তবে হঠাৎই গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন আরাবুল ইসলাম। হঠাৎ পাওয়া এই খব্রে কপালে চিন্তার ভাজ পড়েছে আরাবুল প্রেমীদের।

গ্রেপ্তার হওয়ার পর ইতিমধ্যেই একবার আদালতে তলা হয়েছে তাঁকে। দ্বিতীয়বারের জন্য আদালতে তোলার কথা ছিল তাঁকে কিন্তু তাঁর আগেই শনিবার হঠাৎ বুকে তীব্র ব্যাথা অনুভব করেন আরাবুল। চিকিৎসার জন্য তাঁকে নলমুড়ি ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায় ভাঙড় থানার পুলিশ। সেখান থেকে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, উচ্চরক্তচাপ জনিত সমস্যার কারনে বুকে ব্যাথা অনুভব করেন আরাবুল। আপাতত তাঁর চিকিৎসা চলছে।

উল্লেখ্য, পাওয়ার গ্রিড ইস্যুতে অশান্ত ভাঙড়ের শিরোনামে উঠে আসা অন্যতম নাম এই আরাবুল। কিছুদিন আগে জমি রক্ষা কমিটির মিছিলে হামলা চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় আরাবুলকে। সেই ঘটনায় মৃত্যু হয় হাফিজ়ুল মোল্লা নামে জমি রক্ষা কমিটির এক সদস্যের। ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে গ্রেপ্তার করা হয় আরাবুলকে। আদালতে তোলা হ্লে তাঁকে ১০ দিনের পুলিশ হেফাজত দেন বিচারক। এরপর ফের আদালতে তোলার কথা ছিল আরাবুলকে কিন্তু তাঁর আগেই অসুস্থ হয়ে পড়লেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here