kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ভোট-পরবর্তী হিংসায় রাজ্যে দিকে দিকে আক্রান্ত হচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। এই অভিযোগ তুলে সরব রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য দলের তরফে বেশকিছু নেতাকে বিভিন্ন জায়গার পরিস্থিতি দেখতে পাঠানো হয়েছিল। শুক্রবার সেইসব নেতাদের জেলা সফরের রিপোর্ট দেওয়ার কথা ছিল। আজ দলের নির্বাচনী কার্যালয়ে সেই বৈঠকে ছিলেন রাজ্য নেতৃত্বের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গের নয়া দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা তরুণ চুঘ।

​জানা গিয়েছে, আজ বিজেপির এই বৈঠকে বেশ উত্তপ্ত পরিবেশ তৈরি হয়। রাজ্যের বেশ কয়েকজন নেতা অবিলম্বে এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপ দাবি করে সরব হন। তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং, বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ও নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। এই তিন নেতা আজকের বৈঠকে দলের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বেশ ভালরকম সরব হন বলে জানা গিয়েছে। আর তাদের এই সক্রিয়তায় দলের একাংশ বেশ ক্ষুব্ধ বলে জানা যাচ্ছে।

​আজকের এই বৈঠকে ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং সবচেয়ে বেশি সরব ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। তিনি বলেছেন, বেশ কিছু এলাকায় পরাজিত প্রার্থীরা আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের ফোন ধরছেন না। একইসঙ্গে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে হারের কারণ হিসেবে পছন্দসই প্রার্থী দেওয়া হয়নি বলে তিনি দাবি করেন। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে তিনি বলেছিলেন, আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের পাশে যদি দাঁড়াতে না পারি তা হলে এমন জনপ্রতিনিধি থেকে লাভ কী। তার কয়েক দিন পর আবার অর্জুন সিংকে বলতে শোনা যায়, কেন্দ্র শুধু কথার কথা বলে যাচ্ছে। কাজের কাজ কিছু হচ্ছে না। অর্জুন সিং-এর সাম্প্রতিক এই দুটি মন্তব্যের পর আজ তিনি যে ভাবে সরব হয়েছিলেন, তাতে বেশ অস্বস্তিতে পড়তে হয় বিজেপি নেতৃত্বকে। আজকের বৈঠকেও অর্জুন সিং কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন বলে জানা যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here