ডেস্ক: পাকিস্তানের বেলাগাম সন্ত্রাস রুখতে এবার আসরে নামলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। শুক্রবার উপত্যকার একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাওয়াত বলেন, সেনার তরফ থেকে পাল্টা হামলায় বিরাম দেওয়া যেতেই পারে। কিন্তু পাক জঙ্গিদেরও বিষয়টি নিয়ে ভাবার প্রয়োজন রয়েছে। কারণ শান্তি রক্ষা যদি পাকিস্তানের কাম্য হয়, তবে তাদেরও জম্মু কাশ্মীরে জঙ্গি পাঠানো বন্ধ করতে হবে।

শ্রীনগর থেকে প্রায় ৯৫ কিলোমিটার দূরে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এদিন পহলগাম গিয়েছিলেন সেনাপ্রধান। সেখানে গিয়ে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সেনাপ্রধান বলেন, ”সত্যিই পাকিস্তানের কাম্য যদি শান্তি হয় তবে আমাদের চাহিদা ওরা যেন নিজেদের জঙ্গিদের এপারে পাঠানো বন্ধ করে। অনুপ্রবেশের কারণেই বেশিরভাগ যুদ্ধবিরতি সংঘর্ষগুলি ঘটছে। লাগাতার এই অনুপ্রবেশের ফলেই জনগণের ক্ষতি হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন, ”একই ঘটনা বারবার ঘটলে পাল্টা জবাব দেওয়াও প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে। চুপ করে তো বসে থাকা সম্ভব নয়। যদি পাকিস্তান হামলা চালিয়ে যায় তবে আমরাও পাল্টা জবাব দেব।”

অন্যদিকে, এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলে উঠে আসে মেজর লিটুল গগৈ-এর কথাও। উল্লেখ্য, দিনকয়েক আগেই এক তরুণীকে নিয়ে শ্রীনগরের একটি হোটেলে অস্বস্তিকর অবস্থায় ধরা পড়েন সেনাবাহিনীর এই মেজর। জিপের সামনে এক যুবককে বেঁধে মানবঢাল বানানোর মূল কারিগর ছিলেন এই মেজর। তাঁর এই কেলেঙ্কারি প্রসঙ্গে সেনাপ্রধানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ”কোনও অপরাধে যদি মেজর দোষী সাব্যস্ত হন হবে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে তাঁর।”

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here