রবিবার দুপুরে যমুনার তীরে নিগমবোধ ঘাটে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে অরুণ জেটলির

0

মহানগর ওয়েবডেস্ক: অকালেই চলে গেলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলি। মাত্র ৬৬ বছর বয়সে দিল্লির এইমসে শনিবার দুপুর ১২টা ৭ নাগাদ শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। এই খবর পাওয়ার পর থেকেই শোকের ছায়া নেমেছে দেশ জুড়ে। জানা গিয়েছে, আগামী কাল অর্থাৎ রবিবার নয়াদিল্লির নিগমবোধ ঘাটে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হবে। তবে শেষকৃত্যের আগে জেটলির নশ্বর দেহ নিয়ে যাওয়া হবে দিল্লি বিজেপির সদর দফতরে। সেখানে দুপুর ২টো পর্যন্ত রাখা হবে তাঁকে। এরপর নিগমবোধ ঘাটে নিয়ে গিয়ে যমুনার তীরে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে অরুণ জেটলির।

দীর্ঘদিন ধরে কিডনির রোগে ভুগছিলেন জেটলি। শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি গত ৯ অগস্ট ভর্তি হন এইমসে। তারপর থেকেই যমে-মানুষে টানাটানি চলছে জেটলিকে নিয়ে। অত্যন্ত সংকটজনক অবস্থায় বেশ কয়েকদিন ভেন্টিলেশনে কাটানোর পর এদিন দুপুর ১২টার পরই না ফেরার দেশে চলে যান জেটলি। তাঁর মৃত্যুর পর শোকপ্রকাশ করতে কেউ বাকি রাখেননি। দেশের প্রধানমন্ত্রী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, প্রধান বিচারপতি, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী; সকলেই স্তম্ভিত এই প্রবীণ রাজনীতিবিদের অকাল প্রয়াণে।

প্রথম মোদী সরকারের অন্যতম ট্রাবলশ্যুটার ছিলেন অরুণ জেটলি৷ শারীরিক অবস্থার প্রবল অবনতি হওয়ায় ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে রাজি হননি অরুণ জেটলি। অসুস্থতার জেরে মোদীর মন্ত্রিসভায় মন্ত্রকের দায়িত্ব নিতেও চাননি তিনি। মোদী-১ ক্যাবিনেটে তিনি অর্থমন্ত্রী থাকার সময়ই জিএসটি ও নোটবন্দির মতো বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। মোদী সরকারের নানা সমস্যার সমাধানের নাম জেটলি৷ ক্যাবিনেটের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী ছিলেন৷ সুষমা স্বরাজের মৃত্যুর ঘা এখনও কাটিয়ে ওঠেনি দেশ৷ তার আগেই প্রয়াত হলেন অরুণ জেটলি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here