Home Featured স্বামীর পেনশনে ‘না’! সংসদের দরিদ্র কর্মীদের সেই টাকা দিতে চান অরুণ-জায়া

স্বামীর পেনশনে ‘না’! সংসদের দরিদ্র কর্মীদের সেই টাকা দিতে চান অরুণ-জায়া

0
স্বামীর পেনশনে ‘না’! সংসদের দরিদ্র কর্মীদের সেই টাকা দিতে চান অরুণ-জায়া
Parul

মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাজনীতিতে শত্রুর অভাব হয় না। কিন্তু প্রয়াত অরুণ জেটলি এমন একজন ছিলেন যাঁর হয়তো বন্ধুর কোনও অভাব ছিল না। যে যা দলই করুক না কেন, অরুণ জেটলির সঙ্গে সখ্যতা তাঁর থাকবেই। এই মূল কারণ অবশ্যই তাঁর মানসিকতা, আচার, ব্যবহার। মৃত্যুর পরেও অরুণ জেটলির শীষ্টাচার বাঁচিয়ে রাখলেন তাঁর স্ত্রী সঙ্গীতা জেটলি। তাঁর পদক্ষেপকে কুর্নিশ জানাচ্ছে গোটা দেশ।

ভারতীয় জনতা পার্টির রাজ্যসভা প্রতিনিধি ছিলেন অরুণ জেটলি। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী মৃত্যুর পর তাঁর স্ত্রী পেনশনের সব টাকা পাবেন। কিন্তু টাকা নেওয়ার পথে হাঁটলেন না তিনি। অরুণ জেটলির স্ত্রী সঙ্গীতার আর্জি অরুণ জেটলির পেনশনের টাকা রাজ্যসভার দরিদ্র কর্মীদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হোক। এই আর্জি জানিয়ে ইতিমধ্যেই তিনি রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম বেঙ্কাইয়া নাইডুর কাছে তিনি লিখিত অনুরোধ করেছেন। নাইডুকে যে চিঠি তিনি লিখেছেন তাতে উল্লেখ রয়েছে,

‘অরুণ সারা জীবন নিঃশব্দে অনেকের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছেন। তাই প্রয়াত সাংসদের পরিবারকে পেনশন দেওয়ার রীতিকে কোনও রকম অশ্রদ্ধা না করেই আমি সংসদের কাছে বিনীত অনুরোধ করব যাতে ওঁর পেনশনের টাকা সেই সব মানুষের মধ্যে ভাগ করে দিতে যাঁদের জন্যে অরুণ দীর্ঘ ২০ বছর কাজ করেছেন। রাজ্যসভার চতুর্থ শ্রেণীর কর্মীদের মধ্যে মাসিক এই টাকা ভাগ করে দিলে বাধিত হব।’

সঙ্গীতার দাবি, অরুণ জেটলি অবশ্যভাবেই এতে সহমত হতেন।

চলতি বছরের ২৪ অগাস্ট নয়া দিল্লির এইমস-এ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলি। তাঁর মৃত্যুর পর স্বভাবতই শোকের ছায়া নেমে আসে দেশের রাজনৈতিক মহলে। দলমত নির্বিশেষে সকল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তাঁকে শ্রদ্ধা জানান। এবার তাঁর মৃত্যুর পর স্ত্রী সঙ্গীতার উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছেন সকলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here