arun-jetli

ডেস্ক: বারাণসীতে মোদীর ক্যারিশ্মায় ভাঙন ধরাতে জল্পনা চলছিল কংগ্রেসের তুরুপের তাস হতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তবে রাহুল বোধহয় চান না রাজনীতিতে প্রবেশের পর প্রথম নির্বাচনে প্রিয়াঙ্কা হারুক। আর সেই কারণেই প্রিয়াঙ্কার পরিবর্তে গতবারের হারা প্রার্থী অজয় রায়কেই দাঁড় করিয়েছে কংগ্রেস। ঠিক তাঁর পরেই এবার বিজেপির তরফে কটাক্ষবাণ ধেয়ে এল কংগ্রেসকে উদ্দেশ্য করে। প্রিয়াঙ্কার বারাণসী কেন্দ্র থেকে না লড়ার ইস্যু তুলে কটাক্ষটা করলেন অরুণ জেটলি।

এদিন প্রিয়াঙ্কাকে উদ্দেশ্য করে একটি ব্লগ লেখেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা অরুণ জেটলি। রিফিউড ইন ওয়ানাড অ্যান্ড রিফিউজ আওয়ে ফ্রম বারাণসী – দ্য স্টোরি অব ফ্যামিলি ডাইন্যাস্টি শিরোনামের এই ব্লগের পরতে পড়তে ছিল প্রিয়াঙ্কাকে উদ্দেশ্য করে কটাক্ষ। তাঁর কথায়, মাস দুয়েক হল উনি রাজনীতিতে প্রবেশ করেছেন ভেবেছিলেন কংগ্রেসকে বদলে দেবেন তিনি। কিন্তু এটা স্পষ্ট, ভারত বদলে গিয়েছে। ভোটাররা আর পরিবারতন্ত্রকে মেনে নিতে পারবে না।

পাশাপাশি নিজের ব্লগে তিনি আরও লেখেন, এখন গোটা বিষয়টি সকলের কাছে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে কোনওভাবেই কংগ্রেসকে বদলাতে পারবেন না প্রিয়াঙ্কা। ফলে কংগ্রেসের এখন উচিত গত চার দশকে আমেঠিতে ও রায়বরেলিতে তাঁরা কী কাজ করেছেন সেই কাজের পর্যালোচনা করা। পাশাপাশি, তাদের এটাও দেখা উচিৎ গত ৫ বছরে নরেন্দ্র মোদী দেশে কীভাবে উন্নয়ন যজ্ঞ চালিয়েছেন। কংগ্রেসকে উদ্দেশ্যে জেটলির এই কটাক্ষের কারণ যে গুঞ্জন তুলে প্রিয়াঙ্কাকে বারাণসী কেন্দ্র থেকে সরানো তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

প্রসঙ্গত, এদিনই বারাণসী কেন্দ্র থেকে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। ওই কেন্দ্রেই কংগ্রেসের তরফে প্রার্থী হিসাবে দাঁড় করানো হয়েছে অজয় রাইকে। যদিও সেখানে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর দাঁড়ানোর কথা ছিল। গতবার এই কেন্দ্রে যেখানে ৫ লক্ষ ৮০ হাজারের কিছু বেশি ভোটে বিপুল জয় পেয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। সেখানে মাত্র ৭৫ হাজার ভোট পান ওই কংগ্রেস নেতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here