kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধিহিন্দু হলে সম্মান করত। মুসলিম বলেই ধাক্কা দিল! এ আক্ষেপ আর কারও নয়, খোদ রাজ্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সন্দেশখালির সরবেড়িয়া এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিলি করতে গিয়ে হেনস্থার শিকার হন সিদ্দিকুল্লা। সে প্রসঙ্গেই তাঁর কথায় ঝরে পড়েছে আক্ষেপ।

ads

স্থানীয় সূত্রে খবর, গতকাল, শুক্রবার বিকেলে ত্রাণসামগ্রী বিলি করতে সরবেড়িয়া এলাকায় গিয়েছিলেন রাজ্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা। যশ ও আমপানে যাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তাঁদেরই ত্রাণ বিলির কথা ছিল মন্ত্রীর। সেই মতো আগেই এলাকায় চলে এসেছিলেন সিদ্দিকুল্লার অনুগামীরা। শুরু হয় ত্রাণ বিলির কাজ। অভিযোগ, ওই সময় আচমকাই বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী এসে ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করে। বেধড়ক মারধর করা হয় মন্ত্রীর অনুগামীদের। তার আগেই তারা আটকায় খোদ মন্ত্রীর গাড়ি। গাড়ি থেকে টেনে হিঁচড়ে সিদ্দিকুল্লাকে নামানো হয় বলে অভিযোগ।

মিনি ট্রাক ভর্তি ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। সিদ্দিকুল্লার অভিযোগ, সন্দেশখালির তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহান ও সফিকুল ইসলামের অনুগামীরা ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করেছে। হেনস্থাও করেছে তাঁদের। দুষ্কৃতীরা ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করে পালিয়ে যাওয়ার পরে মন্ত্রী ফেরেন। তার আগে কথা বলেন অনুগামীদের সঙ্গে। এর পরেই সিদ্দিকুল্লা বলেন, হিন্দু হলে আমাকে সম্মান দিত। মুসলিম বলেই কুলাঙ্গারের মতো আচরণ করল। আমাকে গাড়ি থেকে টেনে নামিয়ে ধাক্কা দিল। ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করে কর্মীদের মারধর করল। এমন দুষ্কৃতীদের দল থেকে বের করে দেওয়া উচিত!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here