sai

ডেস্ক: বাবা ধর্ষণের অভিযোগে জেলবন্দী। আদালতের নির্দেশে যাবজ্জীবনের সাজা হয়েছে তাঁর। এবার পিতার যোগ্য পুত্র হিসাবে উঠে এল আসারাম পুত্র নারায়ণ সাই। ধর্ষণের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা চলছিল বহুদিন ধরেই, সেই মামলাতেই এদিন ধর্ষণ মামলায় নারায়ণ সাইকে দোষী সাব্যস্ত করল সুরাত কোর্ট। আগামী ৩০ এপ্রিল সাইয়ের সাজা ঘোষণা করবে আদালত।

গুজরাতের সুরাতেই দুই বোনকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষণের মামলা রুজু হয়েছিল স্বঘোষিত ধর্মগুরু আসারাম বাপু ও তাঁর পুত্র নারায়ণ সাইয়ের বিরুদ্ধে। ২০১৩ সালে দিল্লি হরিয়ানা বর্ডার থেকে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে। ১১ বছর ধরে চলা এই মামলায় ওই দুই নিগৃহিতার ব্যান নেওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘ মামলায় ৫৩ জনের বয়ান নথিভুক্ত করে আদালত। দীর্ঘদিন ধরে শুনানি চলার পর অবশেষে ধর্ষণ মামলায় আসারাম পুত্রকে দোষী সাব্যস্ত করল আদালত। শুধু ধর্ষণ মামলা নয় সাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, জামিন পেতে জেলের অফিসারদের ১৩ কোটি টাকা ঘুষ দিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, যোধপুর আশ্রমে এক কিশোরীকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে ইন্দোর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল আসারাম বাপুকে। এরপর যোধপুরের কেন্দ্রীয় কারাগার চত্বরের বিশেষ আদালতে গতবছর ভারতের ভণ্ডগুরু আসারাম বাপুকে যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করে আদালত। পিতার পথে হেঁটে এবার পুত্রের জন্য কি সাজা অপেক্ষা করছে সেটাই দেখার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here