news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক : এ যেন এক মহাপ্রলয়, খুবই অশান্তির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে ২০২০ সালটি। কোথাও ঘূর্ণিঝড়, কোথাও ভূমিকম্প, আবার কোথাও উৎপাত শুরু করেছে পঙ্গপাল। এরই সঙ্গেই প্রতিনিয়ত চোখ রাঙাচ্ছে করোনা ভাইরাস। এরই মাঝে তীব্র দহনে দাউদাউ করে জ্বলে উঠল দিল্লির দুটি জায়গা।

গত সোমবার রাতেই প্রথমে দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির তুঘলাকাবাদ এলাকার বস্তিতে ছড়িয়ে পড়ে আগুনের লেলিহান শিখা। আর তারপরই কেশবপুরম এলাকার একটি জুতোর কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সামনে এসেছে। করোনার সময় এই আগুন লাগায় বেজায় চাপে পরে দিল্লি পুলিশ। আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে হিমশিম খায় দমকল বাহিনী।

গত সোমবার রাতেই তুঘলকাবাদ এলাকার বস্তিতে আগুন লাগায় ঘটনাস্থলে প্রথমে পৌঁছায় ২০ টি দমকল ইঞ্জিন যদিও আগুনের তেজ বাড়তে থাকায় পরবর্তীতে আরও ১০ টি দমকলের ইঞ্জিন যাওয়াতে আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। কিন্তু এই আগুনের জন্য পুড়ে চাই হয়ে গিয়েছে ১৫০০ বস্তি বাড়ি। যদিও সঠিক সময় দমকলের আধিকারিকেরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাওয়ায় হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি এখনও পর্যন্ত। এদিকে গত সোমবার রাতে দক্ষিণ দিল্লির এই আগুনের পর আজ সকালেই আরও জায়গায় আগুন লাগে বলে জানা যায়। দিল্লির কেশবপুরম এলাকায় একটি কারখানায় আগুন লাগে বলে জানা যায়। ঘটনাস্থলে দমকলের ২৪ টি ইঞ্জিন গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। দুটি জায়গায় আগুন লাগার মূল কারণ এখনও পর্যন্ত জানতে পারেনি দিল্লি পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here