ডেস্ক: পাবলিক রেডের নাম করে এক মহিলার বাড়িতে ঢুকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠল অল্পেশ ঠাকুর, গুজরাতের দলিত নেতা জিগনেশ মেওয়ানি এবং হার্দিক প্যাটেলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গুজরাতের গান্ধীনগর এলাকায়। এই ঘটনার পর ওই মহিলা গান্ধীনগর থানায় এই তিন নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে।

অভিযোগ, তল্লাশির নাম করে ওই গ্রামেরই বাসিন্দা কাঞ্চনবেন জালা নামের এক মহিলার বাড়িতে জোর করে ঢুকে পড়ে এই তিন নেতা। এরপর বাড়ি থেকে দু প্যাকেট অ্যালকোহল উদ্ধার করেন ওই তিন নেতা ৷ আর সেই নিয়েই বাড়ির লোকজনকে অকারণে ধমকানোও হয় বলে অভিযোগ ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। যদিও ওই মহিলার দাবি যে, প্রবীণ ভার্দব নামে এক ব্যক্তি ইচ্ছেকৃতভাবে ওই অ্যালকোহল রেখে গিয়েছিলেন তাঁর বাড়িতে। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই এই গান্ধীনগর এলাকারই চারজনের বিষমদ খেয়ে মৃত্যু হয়। এরপর থেকেই নাকি ওই এলাকার মদের আসরগুলিতে আচমকা হানা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল এই তিন নেতা। পুলিশকে দেওয়া বয়ানে তারা জানিয়েছে যে, গান্ধীনগরে মদ বিক্রি নিষিদ্ধ হলেও সেখানে নাকি এখনও বেশ কয়েকটি জায়গায় এখনও মদ বিক্রি হয়। সেই কারণেই এমন অতর্কিত হানা চালিয়েছে তারা। কিন্তু এই তিন নেতার দাবি একেবারেই ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে গান্ধীনগর থানার পুলিশ। গান্ধীনগর থানার এসপি জানিয়েছে, সেখানে মদ বিক্রি একেবারেই নিসিদ্ধ। তাই তাঁরা কেন এমন ধরনের একটি অভিযান চালিয়েছে তা একেবারেই স্পষ্ট নয় পুলিশের কাছে। পুলিশ পুরো ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here