news sports

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এটিকে-মোহনবাগানের সংযুক্তিকরণের পর শুক্রবার দুপুরে ছিল প্রথম বৈঠক। এদিন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, বাগানের জার্সির রঙ ও লোগো একই থাকছে। শুধু মোহনবাগানের আগে জুড়ে গেল এটিকে।

ঐতিহাসিক এই গাঁটছড়ার মধ্যে আন্তর্জাতিক সম্ভাবনা দেখছেন নীতা আম্বানি। আইএসএলের অন্যতম উদ্যোক্তা ও ফুটবল স্পোর্টস ডেভলপমেন্ট লিমিটেডের (এফএসডিএল) প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারপার্সন নীতার সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছে আইএসএলের ওয়েবসাইটে।

নীতা সেখানে বলছেন “হিরো ইন্ডিয়ান সুপার লিগে কিংবদন্তি ভারতীয় ফুটবল ক্লাবকে স্বাগত জানাচ্ছি। শুক্রবার ১৩০ বছরের পুরনো এই ক্লাবের সঙ্গে তিনবারের আইএসএল চ্যাম্পিয়ন ক্লাবের অনুষ্ঠানিক সংযুক্তিকরণ হল। আমার বিশ্বাস আজ থেকে ভারতীয় ফুটবলে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো।”

নীতা আরও বলেছেন, “এটিকে ও মোহনবাগান ভারতীয় ফুটবলের দুই পাওয়ারহাউস। আমি হৃদয় থেকে মোহনবাগানকে স্বাগত জানাই এই টুর্নামেন্টে। ভারতের প্রাচীনতম ও বিখ্যাত ফুটবল ক্লাব ওরা। সঞ্জীব গোয়েঙ্কাকেও শুভেচ্ছা উনি যেভাবে আই-লিগ চ্যাম্পিয়নদের দু’হাত দিয়ে আপন করে নিয়েছেন।”

এফএসডিএল-এর চেয়ারপার্সন নীতা আন্তর্জাতিক সম্ভাবনার কথা ভেবে বলছেন, “এই দুই হেভিওয়েট ক্লাবের এক সঙ্গে পথ চলা ভারতীয় ফুটবলের ইতিহাসে নতুন অধ্যায় লিখবে। আমার বিশ্বাস এটিকে-মোহনবাগান এফসি শুধু পশ্চিমবঙ্গ বা ভারতীয় ফুটবলেরই বিরাট সম্ভাবনা নয়, আন্তর্জাতিক স্তরেও ভাবতে হবে। আমরা চেষ্টা করব এএফসি-র প্রতিযোগিতাগুলোয় যাতে ভারতীয় ক্লাবগুলো শক্তিশালী ফুটবলার পাঠাতে পারে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here