alia razi bengali news

Highlights

  • পরিচালকের জন্য জাতীয় পুরস্কার পেল না ‘রাজি’
  • ছবি থেকে ‘তিরঙ্গা দৃশ্য’ বাদের জন্য
  • ‘কলিং শেহমাত’ থেকে গৃহীত হয়েছে ‘রাজি’ ছবিটি
  • আক্ষেপ বইয়ের লেখক হরিন্দর সিক্কার

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পরিচালক মেঘনা গুলজারের কারণেই ‘রাজি’ ছবিটি জাতীয় পুরস্কার পেল না, বলেছেন লেখক হরিন্দর সিক্কা। এই ছবিটি সিক্কার ‘কলিং শেহমাত’ থেকে গৃহীত হয়েছে। যেখানে শেহমাতের পুরো কাহিনিকে ছবিতে তুলে হয়। সেই চরিত্রে অভিনয় করেছেন আলিয়া ভাট। হরিন্দর বলেন, ‘রাজি’থেকে ‘তিরঙ্গা দৃশ্য’-টি বাদ দেওয়ার কারণেই এই ছবিটি জাতীয় পুরস্কার পাইনি। এবং সেই সঙ্গে তাঁর লেখার কোনও দাম রইল না বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে আক্ষেপ প্রকাশ করলেন হরিন্দর সিক্কা।

তিনি বলেন, ‘আমার বইয়ের গল্পটা ছিল যে, শেষে শেহমাত তিরঙ্গা দেখে স্যালুট করবে। কিন্তু ছবিতে সেই দৃশ্যকেই ছেঁটে ফেলা হয়েছে। যার জেরে আজ এই ছবিটি জাতীয় পুরস্কার পেল না। আমি পরিচালককে জানিয়েছিলাম, ছবি থেকে ‘তিরঙ্গা দৃশ্য’ বাদ দিলে পুরস্কার পাওয়া যাবে না। যদিও এই বিষয়ে সম্পূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন পরিচালক মেঘনা গুলজার। তিনি সেই দৃশ্য ছেঁটে ফেলেন। যার ফলস্বরূপ ‘রাজি’ সিনেমাটি জাতীয় পুরস্কার পাইনি। এই বিষয়টা আমার খারাপ লেগেছে। তাই বিরিক্তপ্রকাশ করতে বাধ্য হলাম।’

বই নিয়ে সিক্কা আরও জানালেন, ‘আমি এমন একজন ব্যক্তি যে আগে কখনও কোনও বই লেখেনি। আমার প্রথম লেখা বই হচ্ছে ‘কলিং শেহমাত’। ৫ লক্ষেরও বেশি কপি বিক্রি হয়েছিল। শেহমাত আমাকে শিখিয়েছে কীভাবে বাঁচতে হয়। আমরা খুব সহজেই কাশ্মীরি মুসলিমদের বিষয়ে ধারণা করে নিতে পারি যে তারা সন্ত্রাসবাদী। আমাদের বুঝতে হবে যে কোনও মায়েরা তাদের পুত্র সন্তানদের হাতে পাথর ধরিয়ে বলে না, কাউকে মারতে। সুতরাং এই কথাগুলো বললে আর চলে না। আমার পরবর্তী বই ৩৭০ ধারার বিষয় নিয়ে হবে। এবং আমি এখনও বলব যে শেহমাত সত্যি আমার অনুপ্রেরণা।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here