নিজস্ব প্রতিবেদক, মেদিনীপুর: বিজেপিকে প্রধান বিরোধী ধরলেও তাদের বিরুদ্ধে লড়ার জন্য তৃণমূলের সঙ্গ দেব না। সামনেই তৃণমূল নির্মূল হয়ে যাবে – রবিবার দুপুরে মেদিনীপুর শহরে এক সম্মেলনে একথা জানালেন প্রণবপুত্র তথা জঙ্গীপুরের কংগ্রেস সাংসদ অভিজিৎ মুখার্জি। একই সঙ্গে এনআরসি বিষয়ে তৃণমূল ও বিজেপিকে রাজনীতি করা নিয়ে কটাক্ষ করলেন আসামের সাংসদ গৌরব গগৈ। রবিবার মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর হলে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বার্ষিক সম্মেলন সভার আয়োজন করা হয়েছিল। যেখানে জেলা কংগ্রেসের নেতা কর্মীদের মাঝে উপস্থিত হয়েছিলেন কংগ্রেসের রাজ্য নেতা তথা সাংসদ অভিজিৎ মুখার্জি, আসামের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ এর পুত্র গৌরভ গগৈ।

এই সভাতেই নিজের বক্তব্যে অভিজিৎ মুখার্জি বলেন,’কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে অনেকে কংগ্রেসকেই ব্যাঙ্গ করেন। বর্তমান সেই দল কংগ্রেস থেকে জন্ম নিয়ে তাকে ব্যবহার করে তাদেরই বিরুদ্ধেই বলে চলেছে। যারা আমাকে বা অধীর চৌধুরী কে হারানোর কথা বলে, তারা আমরা তো দূর আমাদের মনোনীত একটা প্রার্থীর বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে জিতে দেখান। বুঝে নেবেন মানুষ কংগ্রেসকে সাপোর্ট করে, কংগ্রেসের লেজুড়টাকে না। বাজপেয়ীর সময় তো বর্তমান শাসক দল তাদের সাপোর্ট করেছিল। এই কালেও হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা সারদা নারদা বিজেপির মৌনিতা তো দেখতেই পাচ্ছেন সবাই। সাধারণ মানুষ এত বোকা নয়, সময় জবাব দিয়ে দেবে। ২০১৯ এ যাই হোক, ২০২১ এ পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেস। একটা সময় আসবে যখন তৃণমূল কংগ্রেস নির্মূল হয়ে যাবে।’ এদিন সাংবাদিকদের সামনে অভিজিৎ মুখার্জি বলেন,’পরিস্থিতি যাই হোক না কেন বিজেপি বিরোধী জোট হলেও তৃণমূলের সঙ্গে কোন অ্যালায়েন্স হবে না।’

নিজের বক্তব্যে আসামের সাংসদ গৌরব গগৈ বলেন,’এনআরসি নিয়ে যা হচ্ছে তা শুধু তৃণমূল বিজেপির রাজনীতি। প্রকৃত বাঙালিদের নিরাপদ করা সহ এনআরসির সঠিক ব্যবহার একমাত্র কংগ্রেস করেছে, তারাই করে দেখাবে। আমরা কর্মীদের মনোবল ফেরাতে বুথ স্তর থেকে বৈঠক করছি। প্রাচ্যের বিভিন্ন জেলাতে পর পর শুরু করেছি সব জেলাতেই হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here